kalerkantho

রবিবার । ১ কার্তিক ১৪২৮। ১৭ অক্টোবর ২০২১। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

পাবনায় আওয়ামী লীগ নেতার নলকূপকাণ্ড

পাবনা ও ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধি   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাবনার ফরিদপুর উপজেলার ডেমরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলীর বিরুদ্ধে সরকারি নলকূপ ৪০ হাজার টাকায় বেচার অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চলতি অর্থবছরে উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল দপ্তর ডেমরা ইউনিয়নে ২৬টি সাবমার্সিবল পাম্প বরাদ্দ দেয়। এর মধ্যে শাকপালা গ্রামের বাসিন্দা আশরাফ আলী একটি পাম্প বরাদ্দ নেন। গত সপ্তাহ থেকে ঠিকাদার এসব পাম্প সুবিধাভোগীদের বাড়িতে স্থাপন করছেন। বুধবার ঠিকাদারের লোকজন আশরাফ আলীর বাড়িতে পাম্প স্থাপন করতে যান। তখন আশরাফ আলী পাম্পের সরঞ্জাম আবদুল হাইয়ের বাড়িতে নিয়ে স্থাপন করতে বলেন। নামের গরমিল হওয়ায় ঠিকাদারের লোকজন এলাকাবাসীকে জিজ্ঞাসা করলে বিষয়টি জানাজানি হয়। এতে এলাকাবাসী তাৎক্ষণিক উপজেলা চেয়ারম্যান ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অফিসে অভিযোগ করে।

এ বিষয়ে আবদুল হাইয়ের স্ত্রী বলেন, ‘আমাদের কাছ থেকে আশরাফ আলী টাকা নেয়নি। দূর সম্পর্কের চাচা হওয়ায় তার নামে বরাদ্দ পাম্প আমাদের দিয়েছিলেন। কিন্তু অফিসের লোকজন সেটা কেড়ে নিয়ে গেছে।’

আশরাফ আলী বলেন, ‘পাম্প আবদুল হাইকে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ভুলবশত আমার নামে হয়ে যায়। তাই ওই ব্যক্তির বাড়িতে বসাতে বলা হয়েছে। তবে টাকা নেওয়ার বিষয়ে এলাকাবাসীর অভিযোগ ভিত্তিহীন।’

ডেমরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান বলেন, পাম্প অন্যকে দেওয়া মোটেও ঠিক হয়নি। এ কারণে বিষয়টি নিয়ে এলাকাবাসী টাকা-পয়সা লেনদেনের অভিযোগ করেছে।

উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ বলেন, একজনের নামে বরাদ্দ পাম্প আরেকজনের বাড়িতে বসানোর সুযোগ নেই।



সাতদিনের সেরা