kalerkantho

বুধবার । ৭ আশ্বিন ১৪২৮। ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৪ সফর ১৪৪৩

শাক বিক্রি ছেড়ে স্কুলে যাচ্ছে আরাফাত

জয়পুরহাট প্রতিনিধি   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শাক বিক্রি ছেড়ে স্কুলে যাচ্ছে আরাফাত

জয়পুরহাটের পলিকাদোয়া গ্রামের কিশোর আরাফাত এখন স্কুলে যাচ্ছে। পড়াশোনা ছেড়ে দুই বছর ধরে জেলা শহরে কাঁধে ভার নিয়ে ফেরি করে শাক বেঁচে সংসারের খরচ জোগাত সে। এ নিয়ে কালের কণ্ঠে সচিত্র সংবাদ প্রকাশিত হলে বিষয়টি নজরে আসে জেলা প্রশাসক শরিফুল ইসলামের। গত রবিবার তিনি কিশোর আরাফাত ও তাঁর মা মাসুমা বেগমকে অফিসে ডেকে নেন। পরে তাঁর মাকে একটি হাঁসের খামার করে দেওয়ার আশ্বাস দেন। একই সঙ্গে তিনি আরাফাতকে নিয়মিত স্কুলে যাওয়ার নির্দেশ দেন। এ সময় জেলা প্রশাসক আরাফাতকে নগদ দুই হাজার টাকা এবং ১০ কেজি চাল দেন। অন্যদিকে সংবাদটি পড়ার পর লন্ডনে সফরে থাকা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন আর্থিক সহযোগিতা দেওয়ার আশ্বাস দেন।

পলিকাদোয়া গ্রামের হতদরিদ্র মোজাম্মেল হকের ছেলে আরাফাত মাত্র ৯ বছর বয়সেই শাক বিক্রি করে সংসারের খরচ বহন করে আসছিল। পলিকাদোয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ার পর আর তাঁর স্কুলে যাওয়া হয়ে ওঠেনি। আরাফাতের জীবনযুদ্ধ নিয়ে গত শনিবার কালের কণ্ঠে প্রকাশিত ‘স্কুলের ব্যাগ নয়, কাঁধে সংসারের ভার’ শিরোনামে সচিত্র প্রতিবেদনটি এলাকায় বেশ আলোড়ন তোলে।



সাতদিনের সেরা