kalerkantho

শুক্রবার । ২ আশ্বিন ১৪২৮। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ৯ সফর ১৪৪৩

বিয়ের দিন কনেকে ছুুরি মেরে পালাল বখাটে

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, রংপুর   

২৯ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রংপুরের বদরগঞ্জে বিয়ের দিন ঘরে ঢুকে এক ছাত্রীকে ছুুরি মেরেছে এক বখাটে। গতকাল বুধবার ভোরে সাজানোগ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত ওই ছাত্রীকে (১৪) রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সে একটি মাদরাসার নবম শ্রেণির ছাত্রী। ছুরিকাঘাতের পর বখাটেকে ধাওয়া দিলে সে মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়।

ওই ছাত্রীর স্বজন ও এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আত্মীয়তার সম্পর্কে মোনায়েম হোসেনের বখাটে ছেলে শাখাওয়াত তাদের পূর্বপরিচিত। শাখাওয়াত এক পর্যায়ে মেয়েটিকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। এর মধ্যে পারিবারিকভাবে মেয়ের বাবা গাছুয়াপাড়া এলাকায় মেয়ের বিয়ে ঠিক করেন। গতকাল এই বিয়ে হওয়ার কথা ছিল, যদিও ওই ছাত্রীর বিয়ের বয়স হয়নি। এদিকে এই ঘটনা জানতে পেরে শাখাওয়াত মোটরসাইকেলযোগে প্রায় আট কিলোমিটার দূরে মেয়ের বাড়িতে এসে তাকে ঘুম থেকে ডেকে তোলেন। পরে দরজার কাছে ছুরি দিয়ে দুই পা, মুখ ও পাঁজরে আঘাত করেন। তখন মেয়েটির চিৎকারে বাড়ির লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে এবং শাখাওয়াতকে ধাওয়া দেয়।

রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সিনিয়র স্টাফ নার্স (ইনচার্জ) রেবেকা সুলতানা জানান, ওই ছাত্রী বর্তমানে অধ্যাপক ডা. জাভেদ আখতার ও ডা. হামিদুল ইসলামের তত্ত্ব্বাবধানে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছে। তবে তার অবস্থা সম্পর্কে চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান বলেন, ‘ঘটনাটি শুনেছি। লিখিত অভিযোগ পাইনি। তবু একজন কর্মকর্তাকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’



সাতদিনের সেরা