kalerkantho

শনিবার । ৩ আশ্বিন ১৪২৮। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১০ সফর ১৪৪৩

অপকর্মে বহিষ্কার ফের পেলেন পদ

তিতাস উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) প্রতিনিধি   

২৬ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুমিল্লার তিতাস উপজেলা ছাত্রলীগের মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটি বিলুপ্ত করে ১১ সদস্যের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। সম্মেলন ছাড়া গোপনে কমিটি ঘোষণা করায় এর বৈধতা নিয়ে বিতর্ক চলছে।

কমিটি ঘোষণার পরপরই ফেসবুকে ছাত্রলীগের ২০১৫ সালের একটি বিজ্ঞপ্তি ছড়িয়ে পড়ে। এতে দেখা যায়, ‘অপকর্ম’ ও ‘গঠনতন্ত্রবিরোধী’ কাজ করায় খায়রুল খন্দকার রুবেলসহ তিনজনকে বহিষ্কার করা হয়। অথচ সেই রুবেলই নবগঠিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদ পেয়েছেন।

সংগঠন সূত্র জানায়, রুবেল তিতাস উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য ছিলেন। অথচ তিনি বিভিন্ন জায়গায় পরিচয় দিতেন উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি হিসেবে। এ ছাড়া তাঁর বিরুদ্ধে তথ্য গোপনের (তাঁর বাড়ি হোমনা উপজেলায়) অভিযোগ ছিল।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার রাতে কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউসার অনিক ও সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) গাজী বোরহান উদ্দিন ভূইয়া স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে তিতাস উপজেলা ছাত্রলীগের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। একই বিজ্ঞপ্তিতে মেয়াদ উত্তীর্ণ আগের কমিটিকে বিলুপ্ত করা হয়েছে।

ঘোষিত কমিটি নিয়ে তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক আহ্বায়ক তোফাজ্জল হোসেন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘একটি অস্বচ্ছ পদ্ধতিতে সৃষ্ট তিতাস ছাত্রলীগের কমিটি বিতর্কের আরেকটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা করল।’

কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার বলেন, ‘ঈদের পরদিন করোনা মহামারিতে গোপনে কমিটি ঘোষণা কোনো উদ্দেশ্য হাসিলের জন্যই।’

সদ্যোবিলুপ্ত কমিটির সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন সাদ্দাম বলেন, ‘ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সভাপতির ছেলে কামরুল হাসান তুষারকে সভাপতি করা হয়েছে।’

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ আহম্মেদ ফকির বলেন, ‘গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করে এ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।’

এ ব্যাপারে সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) গাজী বোরহান উদ্দিন ভূইয়া বলেন, ‘যাঁকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে তাঁর বহিষ্কারাদেশ তুলে নেওয়ার চিঠি আমরা হাতে পাইনি। তবে কেন্দ্রীয় কমিটি আমাদের মৌখিকভাবে বলেছে, সাধারণ সম্পাদকের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে।’

এ বিষয়ে কুমিল্লা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউসার অনিক বলেন, ‘কারো কোনো অভিযোগ থাকলে কেন্দ্রে করুক।’



সাতদিনের সেরা