kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

ভ্রাম্যমাণ আদালতের পুলিশকে মারধর

সৈয়দপুর

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

২৫ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নীলফামারীর সৈয়দপুরে সরকারি কাজে বাধা দেওয়াসহ এক পুলিশ কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় দুই ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। গতকাল শনিবার আদালতের মাধ্যমে তাঁদের কারাগারে পাঠানো হয়। অভিযুক্তরা হলেন সৈয়দপুর শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলতাফ হোসেনের ছেলে ব্যবসায়ী আতিফ হোসেন (২৮) ও আতিক হোসেন (২৬)।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার রাতে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) রমিজ আলমের উপস্থিতিতে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আতাউর রহমান সৈয়দপুর বিমানবন্দর সড়কের ক্যান্টনমেন্ট বাজার মোড়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সহায়তা ও তল্লাশির দায়িত্ব পালন করছিলেন। এ সময় শহরের নতুন বাবুপাড়ার বাসিন্দা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলতাফ হোসেনের দুই ছেলে ব্যবসায়ী আতিফ হোসেন (২৮) ও আতিক হোসেন (২৬) প্রাইভেট কার নিয়ে বেপরোয়া গতিতে যাচ্ছিলেন। পুলিশ সদস্যরা তল্লাশির উদ্দেশ্যে সিগন্যাল দিয়ে তাঁদের প্রাইভেট কারটির গতিরোধ করেন। চলমান কঠোর লকডাউনের মধ্যে সরকারি বিধি-নিষেধ অমান্য করে গাড়ি বের করার অভিযোগে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রমিজ আলম দুই ভাইকে এক হাজার টাকা জরিমানা করেন। কিন্তু তাঁরা জরিমানার অর্থ পরিশোধ না করে দ্রুত গাড়ি নিয়ে সটকে পড়ার চেষ্টা করেন।

এ সময় আতাউর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা ধাওয়া করে তাঁদের গাড়ির গতিরোধ করতে সক্ষম হন। এতে আতিফ হোসেন উত্তেজিত হয়ে পুলিশ কর্মকর্তা আতাউর রহমানের সরকারি পোশাক টেনে ছেঁড়ার পাশাপাশি তাঁকে কিল-ঘুষি মেরে জখম করেন। পরে পুলিশ সদস্যরা দুই ভাই আতিফ হোসেন ও আতিক হোসেনকে আটক করেন।

সৈয়দপুর থানার ওসি আবুল হাসনাত খান জানান, এ ঘটনায়  অভিযুক্তদের আটকের পর শনিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।