kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩০ জুলাই ২০২১। ১৯ জিলহজ ১৪৪২

তিন নম্বর ইট ব্যবহার

বগুড়ার টুনিপাড়া স্কুলের ওয়াশ ব্লকের কাজ বন্ধের নির্দেশ

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি   

২৫ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তিন নম্বর ইট ব্যবহার

তিন নম্বর ইট দিয়ে টুনিপাড়া স্কুলের ওয়াশ ব্লক নির্মাণের অভিযোগ মিলেছে। ছবি : কালের কণ্ঠ

বগুড়ার শেরপুরে আটটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ওয়াশ ব্লক নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। কার্যাদেশের শর্ত ভেঙে তিন নম্বর ইট ব্যবহারের অভিযোগ পেয়ে উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী গতকাল বৃহস্পতিবার টুনিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে কাজ বন্ধ করে দেন। এ সময় উন্নতমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহারের নির্দেশ দেন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় দুটি প্রকল্পের মাধ্যমে দলিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বেওড়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাংড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চৌবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মালিহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ছাতিয়ানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দড়িহাসড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও টুনিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মোট আটটি ওয়াশ ব্লক নির্মাণ করা হচ্ছে। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের অধীনে দ্বিতলবিশিষ্ট এই ওয়াশ ব্লক নির্মাণ করা হচ্ছে। এতে মোট এক কোটি টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে, কিন্তু নির্মাণকাজে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে।

আরো জানা যায়, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স ফাতেমা ট্রেডার্স ১৬ লাখ টাকায় টুনিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ওয়াশ ব্লক নির্মাণ করছে, কিন্তু তারা শর্ত ভেঙে তিন নম্বর ইট ব্যবহার করছে, সিমেন্টও পরিমাণে কম দিচ্ছে বলে অভিযোগ।

এর পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী সাহাবুল ইসলাম গতকাল সকালে সরেজমিনে গিয়ে নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেন। একই সঙ্গে নিম্নমানের সামগ্রী দ্রুত অপসারণ করে উন্নতমানের সামগ্রী ব্যবহারের নির্দেশ দেন তিনি।

অভিযুক্ত মেসার্স ফাতেমা ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী সোলায়মান আলীর দাবি, যথাযথ নিয়ম মেনেই ওয়াশ ব্লক নির্মাণ করা হচ্ছে। তবে ভাটা থেকে নিম্নমানের ইট দেওয়া হয়েছে, যা ফেরত দিয়ে এক নম্বর ইট এনে কাজ শেষ করা হবে।