kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

হাসপাতাল ভাঙচুর মামলায় গ্রেপ্তার ৪

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি   

১৩ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



নাটোরের গুরুদাসপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভাঙচুরের ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা আতিয়ার রহমান বাঁধনসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এই মামলায় গত শুক্রবার রাতে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাঁরা হলেন হাসু, সান্না, জহুরুল ও ডাবলু শাহা। গতকাল শনিবার সকালে তাঁদের জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। প্রসঙ্গত, বাঁধন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি। জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে নাটোর পৌর সদরের চাঁচকৈড় ওভারব্রিজসংলগ্ন গুমানী নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয় রিপন আলীর ছেলে আল আমিন (১১)। দুই ঘণ্টা পর শিশুটির নিথর দেহ উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় শিশুটিকে অক্সিজেন দিতে বলে স্বজনরা। কিন্তু সিলিন্ডারে অক্সিজেন না থাকায় বাঁধনের নেতৃত্বে উত্তেজিত লোকজন হাসপাতালে ভাঙচুর চালায়। ছাত্রলীগ নেতা বাঁধনের মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তাঁর বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। গুরুদাসপুর থানার ওসি মো. আব্দুর রাজ্জাক জানান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা. আরিফা আফরোজ বানুর করা মামলার পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার রাতে চার আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।