kalerkantho

রবিবার । ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮। ১ আগস্ট ২০২১। ২১ জিলহজ ১৪৪২

চুরির অপবাদে শিশুকে গাছে বেঁধে নির্যাতন

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

১২ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চুরির অপবাদে শিশুকে গাছে বেঁধে নির্যাতন

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে গাছের সঙ্গে শিশুটিকে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। ছবি : কালের কণ্ঠ

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে মোবাইল ফোন চুরির অপবাদ দিয়ে ৯ বছরের শিশু রিফাতকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ মিলেছে। সম্প্রতি উপজেলার ডৌহাখলা ইউনিয়নের তীতপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটলেও তা গোপন থাকে। এক পর্যায়ে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হলে বিষয়টি জানাজানি হয়।

এর পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ অভিযুক্ত ফাতেমা আক্তার ও তাঁর ছেলে হিমেলকে গ্রেপ্তার করেছে।

গত বৃহস্পতিবার তীতপুরের নিজ বাড়ি থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। গতকাল শুক্রবার সকালে তাঁদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। রিফাত পাশের রামগোপালপুর ইউনিয়নের মধুবন আদর্শ গ্রামের (গুচ্ছগ্রাম) সুরুজ আলীর ছেলে। সে রামগোপালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র।

রিফাতের বাবা সুরুজ আলী অভিযোগ করেন, গাছ থেকে আম পাড়ার কথা বলে ফাতেমা ও তাঁর ছেলে হিমেল গত ৪ জুন রিফাতকে ডেকে তাঁদের বাড়িতে নিয়ে যান। কিন্তু আম পাড়ার পর ফাতেমা ঘরে গিয়ে দেখেন তাঁর মোবাইল ফোনটি নেই। এ জন্য রিফাতকে সন্দেহ করা হয়। এ সময় মা-ছেলে মিলে রিফাতকে চুরির অপবাদ দিয়ে গাছের সঙ্গে রশি দিয়ে বেঁধে মারধর করেন। এক পর্যায়ে রিফাত অচেতন হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে তিনি আশপাশের লোকজনের সহযোগিতায় ছেলেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন। কিন্তু মা-ছেলে সেখানে গিয়ে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখানোয় তিনি পুলিশের কাছে যেতে পারছিলেন না।



সাতদিনের সেরা