kalerkantho

রবিবার । ৬ আষাঢ় ১৪২৮। ২০ জুন ২০২১। ৮ জিলকদ ১৪৪২

দুপচাঁচিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

ডাক্তার আসিবার পূর্বে রোগী মরিয়া গেল

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি   

৯ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিত্সা না পেয়ে দুই রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শুক্রবার সকালে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত এবং বিষপানে অসুস্থ দুই রোগী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। কিন্তু কোনো চিকিত্সক না থাকায় অনেকটা বিনা চিকিত্সায়ই মারা যান তাঁরা। ঘটনাটি জানাজানি হলে এ নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে রোগীর স্বজনসহ সাধারণ মানুষ।

স্থানীয়দের অভিযোগে জানা যায়, গত শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হামিদ মিয়া নামের এক ব্যক্তিকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। এর কিছুক্ষণ পর বিষপানে অসুস্থ জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার সোনাইমাগুড়া গ্রামের আবদুল গফুরকে (৫০) হাসপাতালে আনা হয়। তখন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোনো চিকিত্সক ছিলেন না। মেডিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট অরবিন্দ ও ওয়ার্ডবয় ফজলুল হক ওই দুই রোগীকে চিকিত্সা দেন। ফলে যথাযথ চিকিত্সা না পেয়ে ওই দুই রোগীরই মৃত্যু হয়। পরে কর্মস্থলে আসেন ডা. আশরাফুল ইসলাম। বিষয়টি থানায় অবহিত না করেই স্বজনদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করেন তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই দুই রোগী মারা যাওয়ার পর ডা. আশরাফুল ইসলাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন। এখন দায়িত্ব অবহেলার ঘটনাটিকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা চলছে বলেও অভিযোগ করে তারা। এ ব্যাপারে ডা. আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘কোনো কিছু জানতে চাইলে তথ্য অধিকার আইনে ফরম পূরণ করে আবেদন করতে হবে। তার আগে এ ব্যাপারে কিছু বলা যাবে না।’ দুপচাঁচিয়া থানার ওসি হাসান আলী জানান, ঘটনা জানার পর দুটি অপমৃত্যুর মামলা নেওয়া হয়েছে।