kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

সুনামগঞ্জে এমপির ভাইয়ের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি   

৮ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুনামগঞ্জ-১ আসনের আওয়ামী লীগদলীয় সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের বড় ভাই মোশারফ হোসেন মাসুদকে না বলে পৈতৃক সম্পত্তি বিক্রি করায় সুনামগঞ্জ জেলা আঞ্চলিক কৃষি ব্যাংকের পরিদর্শক ও জেলা সিবিএ সভাপতি বিকাশরঞ্জন সরকারকে মারধরের পর তাঁর বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা করা হয়েছে। হয়রানিমূলক এই মামলার প্রতিবাদে সুনামগঞ্জ জেলা হিন্দু যুব পরিষদ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেছে। গতকাল শুক্রবার সকালে জেলা শহরের ট্রাফিক পয়েন্টে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজন অংশ নেন। তাঁরা অবিলম্বে মামলাটি প্রত্যাহারসহ মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপিকে বিকাশরঞ্জন সরকারের জমি বিক্রির পাওনা টাকা পরিশোধ করার আহ্বান জানান।

মানববন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করেন, পাইকরহাটি গ্রামের বাসিন্দা বিকাশরঞ্জন সরকার গত ৩ মে পৈতৃক কিছু জায়গা বিক্রি করেন। সেখানকার স্থাপনা সরাতে গেলে মোশারফ হোসেন মাসুদকে না বলায় তিনি কৈফিয়ত তলব করেন। এ সময় বিকাশরঞ্জন সরকার জানান, তাঁর ভাই মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপিকে দুই একর ৫ শতাংশ জমি কয়েক বছর আগে দলিল করে দিলেও এখনো সব টাকা পরিশোধ করেননি। এ কারণে তিনি তাঁদের জমি বিক্রির কথা জানানোর প্রয়োজন মনে করেননি। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে মোশারফ হোসেন মাসুদ ও তাঁর ছেলে তানভীর হোসেন সাগর বিকাশরঞ্জন সরকারকে মারধর করেন। এ সময় তিনি পাশের একটি বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেন। একই সঙ্গে পুলিশের হেল্পলাইন ‘৯৯৯’ নম্বরে ফোন করে উদ্ধারের অনুরোধ জানান। পরে পুলিশ গিয়ে তাঁকে নিয়ে আসে। এ ঘটনায় ৪ মে বিকাশরঞ্জন সরকার এমপির ভাই মোশারফ হোসেন মাসুদ ও তাঁর ছেলে সাগরকে আসামি করে ধর্মপাশা থানায় মামলা করেন।



সাতদিনের সেরা