kalerkantho

সোমবার । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৭ মে ২০২১। ০৪ শাওয়াল ১৪৪

ধামইরহাট

কীটনাশক ছিটানোর পর কৃষকের মৃত্যু

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

৪ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নওগাঁর ধামইরহাটে কীটনাশকের বিষক্রিয়ায় বাদশা মিয়া (৩২) নামের এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। বাদশা মিয়া উপজেলার আড়ানগর গ্রামের মৃত তমিজ উদ্দিনের ছেলে।

স্বজন, এলাকাবাসী ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত রবিবার দুপুরে ধানক্ষেতের ক্ষতিকর পোকা মারার জন্য কীটনাশক স্প্রে করতে যান বাদশা মিয়া। এক পর্যায়ে কীটনাশকের বিষক্রিয়ায় অসুস্থ বোধ করলে ওই দিন সন্ধ্যায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয় তাঁকে। পরদিন সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

এ ব্যাপারে ধামইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক ডা. আবু জার গিফারী বলেন, ‘ওই কৃষক না খেয়ে জমিতে বিষ দিচ্ছিলেন। ফলে দ্রুত বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হন। অসুস্থ হওয়ার প্রায় ছয় ঘণ্টা পর তাঁকে হাসপাতালে আনা হয়। মূলত চিকিৎসা নিতে বিলম্ব হওয়ায় রোগীর অবস্থা জটিল আকার ধারণ করে। ফলে অনেক চেষ্টার পরও তাঁকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।’

বাদশা মিয়ার স্ত্রী ও এক ছেলে রয়েছে। তাঁর স্বজনরা জানিয়েছে, রোজা রেখে তিনি ক্ষেতে কীটনাশক ছিটাতে গিয়েছিলেন। ওই সময়ে তিনি নাক-মুখে কাপড় কিংবা মাস্কও পরেননি। এ কারণে হয়তো বিষক্রিয়ায় অসুস্থ হয়ে মারা যান।

স্বজনরা আরো জানায়, বাদশা মিয়ার মৃত্যু নিয়ে তাদের কোনো অভিযোগ নেই। হাসপাতাল থেকে মরদেহ নিয়ে এসে গতকাল দুপুরে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

ধামইরহাট থানার ওসি আব্দুল মমিন জানান, কোনো অভিযোগ না থাকায় বাদশা মিয়ার লাশ দাফনের জন্য তাঁর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।