kalerkantho

রবিবার । ২৬ বৈশাখ ১৪২৮। ৯ মে ২০২১। ২৬ রমজান ১৪৪২

অপহৃত ছাত্রী উদ্ধার

অপহরণ মামলা থেকে কাউন্সিলরের নাম বাদ

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

১০ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাজীপুরের কালিয়াকৈরে অপহৃত স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে ময়মনসিংহ শহরে আসামি বন্ধুর বাসা থেকে তাকে আনা হয়। এ ঘটনায় রাতে কালিয়াকৈর থানায় একটি অপহরণ মামলা করা হয়। তবে মামলার বাদী প্রথমে কাউন্সিলর কাশেমের নাম উল্লেখ করে বৃহস্পতিবার দুপুরে থানায় অভিযোগ দেন। কিন্তু রাতে কাউন্সিলরের নাম বাদ রেখে আরেকটি  অভিযোগ দায়ের করা হলে পুলিশ তা আমলে নেয়।

অপহৃত ছাত্রী সিরাজগঞ্জের বেলকুচির মেয়ে (১২)। সে গ্রামের বাড়িতে সপ্তম শ্রেণিতে লেখাপড়া করে।

অপহৃতের পরিবার ও থানায় করা মামলা সূত্রে জানা যায়, কালিয়াকৈরের একটি ভাড়া বাড়িতে স্ত্রীকে নিয়ে থাকেন ছাত্রীর বোন জামাই। এক মাস আগে মেয়েটি তার বোনের বাসায় বেড়াতে আসে। এর পর থেকে স্থানীয় যুবক শাকিল তাকে রাস্তাঘাটে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। বিষয়টি সে তার বড় বোনকে জানায়। তিনি এলাকার গণ্যমান্য লোকজনকে জানান। এতে শাকিল ড়্গিপ্ত হয়। পরে  পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আবুল কাশেম ও তার সহযোগী হাফিজুর রহমান, শ্রীবাসের মাধ্যমে ছাত্রী ও তার পরিবারের সদস্যদের হুমকি দেয়। গত বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে মেয়েটি বোনের বাসার পাশে হাঁটাহাঁটি করছিল। এ সময় শাকিলসহ কয়েকজন তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে মেয়েটির বড় বোন বাদী হয়ে শাকিল, কাউন্সিলর আবুল কাশেম, হাফিজুর, শ্রীবাসসহ অজ্ঞাতপরিচয় আরো দুই-তিনজনকে আসামি করে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ করেন। পরে রাতে কাউন্সিলর কাশেমের নাম বাদ রেখে আরেকটি অভিযোগ দায়ের করা হয়।

মামলার বাদী মেয়েটির বড় বোন জানান, প্রথম দফায় কাউন্সিলর কাশেমের নামসহ একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। পরে রাতে বোনকে উদ্ধারের স্বার্থে কাউন্সিলর কাশেমের নাম বাদ রেখে আরেকটি অভিযোগ করা হয়। শুক্রবার সকালে কাউন্সিলর কাশেমের বাসা থেকে আমার বোনকে পেয়ে পুলিশকে জানানো হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কালিয়াকৈর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘অপহৃত মেয়েটিকে অন্য একজনের মাধ্যমে ময়মনসিংহ শহরের শাকিলের বন্ধুর বাসা থেকে উদ্ধার করে আনা হয়। বাদী প্রথমে কাউন্সিলরের নামসহ একটি অভিযোগ করলেও পরে রাতে কাউন্সিলরের নাম বাদ রেখে অভিযোগ করে, যা মামলা আকারে নথিভুক্ত করা হয়।’



সাতদিনের সেরা