kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৩ রজব ১৪৪২

সন্ত্রাসীকে কোপাল জনতা

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



চুরি থেকে শুরু করে অপহরণ—এমন কোনো কাজ নেই, যা সাইফুল ইসলাম মোল্লা (৪০) করেননি। শুধু তা-ই নয়, কারাগারের সীমানপ্রাচীর টপকে পালানোর সময় ধরা পড়েছেন। গত বছর পুলিশের কাছ থেকে হাতকড়াসহ পালিয়ে যাওয়ার ‘রেকর্ড’ও আছে সাইফুলের ঝুলিতে। তাঁর অপকর্মে রীতিমতো অতিষ্ঠ বাগেরহাটের শরণখোলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নবাসী। এর মধ্যে অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিরা সাইফুলকে ধরে কুপিয়ে-পিটিয়ে, দুই চোখ খুঁচিয়ে গুরুতর জখম করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার রাতে মঠেরপাড় গ্রামে। সাইফুল রাজৈর গ্রামের মো. নূরু মোল্লার ছেলে। তিনি খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানা যাবে তাঁর দুই চোখ কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

অভিযোগ পাওয়া গেছে, শনিবার রাতে অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিরা সাইফুলকে ধরে কুপিয়ে-পিটিয়ে, দুই চোখ খুঁচিয়ে ঘটনাস্থলে ফেলে রেখে যায়। গতকাল রবিবার সকালে তাঁকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে গ্রামবাসী। খবর পেয়ে খোন্তাকাটা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেন তালুকদার সাইফুলকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

শরণখোলা থানার ওসি মো. সাইদুর রহমান জানান, অনেকবার ধরা পড়ে জেল খেটেছেন সাইফুল, কিন্তু জামিনে বেরিয়ে আবারও অপকর্ম শুরু করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা