kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৩ রজব ১৪৪২

পৈতৃক জমি ফিরে পেতে তিন বোনের অনশন

বামনা (বরগুনা) প্রতিনিধি   

২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মা-বাবা নেই। সহায়-সম্বল বলতে পৈতৃক জমিটুকুই। তাও অনেক দিন ধরে দখলে রেখেছে কয়েকজন নিকটাত্মীয়। জমি দখলমুক্ত করতে জনপ্রতিনিধি, থানা পুলিশের কাছে দৌড়াদৌড়ি করেও কোনো লাভ হয়নি বলে অভিযোগ।

অবশেষে জমি ফিরে পেতে গতকাল রবিবার সকালে বরগুনার বামনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ের সামনে আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করেন রুবি আক্তার। সঙ্গে যোগ দেন দুই বোন জেসমিন আক্তার ও রোজিনা আক্তার।

এ সময় ইউএনও বিবেক সরকার বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেন তাঁরা। কিন্তু দাপ্তরিক কাজে ইউএনও কার্যালয়ের বাইরে থাকায় অফিস সহকারী মো. রেদোয়ান ইসলাম স্মারকলিপিটি গ্রহণ করেন। বিকেলে ইউএনও ফিরে এলে তাঁর কাছ থেকে আশ্বাস পেয়ে কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নেন তিন বোন। তাঁদের বাড়ি উপজেলার গোলাঘাটা গ্রামে।

রুবি জানান, প্রায় ১৮ বছর আছে তাঁর বাবা আ. রশিদ মারা গেছেন। জীবিকার তাগিদে ভাই আল-আমীনকে নিয়ে চট্টগ্রামে চলে যান তিনি। সেখানে পোশাক কারখানায় শ্রমিকের কাজ নেন। মা আর দুই বোনকে রেখে যান বাড়িতে। এর মধ্যে ২০১৪ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় তাঁর ভাইয়ের মৃত্যু হয়, কিন্তু ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস। দুই বছর পর তাঁর মা-ও মারা যান। এ সময় তাঁর দুই বোনকে বাড়ি থেকে বের করে দেয় নিকটাত্মীয়রা। তখন থেকে চাচাতো ভাই মো. কিসলু মিয়া, মো. শাহজাহান, মো. আশ্রাফ আলী ও আ. মান্নান রুবিদের পৈতৃক জমি ভোগদখল করছে বলে অভিযোগ। বারবার বলার পরও তারা দখল ছাড়েনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা