kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ মাঘ ১৪২৭। ২৮ জানুয়ারি ২০২১। ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বগুড়ার শেরপুর

সরকারি গাছ কাটলেন নেতা

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি   

৬ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বগুড়ার শেরপুর উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রনজু খানের বিরুদ্ধে সরকারি রাস্তা থেকে অবৈধভাবে লক্ষাধিক টাকার গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

গতকাল দুপুরের দিকে সরেজমিন দেখা যায়, জয়লা-বেলগাছী আঞ্চলিক সড়কের বেলগাছী তিনমাথা কবরস্থান এলাকা থেকে গাছ কাটছেন তিনি। শুক্রবার সকাল থেকে শ্রমিক দিয়ে সরকারি রাস্তার গাছ কেটে চলছেন এই নেতা।

জানা গেছে, প্রায় ১০ বছর আগে ওই সড়কটির পাশে সরকারিভাবে শতাধিক ইউক্যালিপটাস ও আকাশমণিগাছ লাগানো হয়। গাছগুলো এখন বেশ বড় হয়েছে। পরিবেশ রক্ষার পাশাপাশি সড়কটির সৌন্দর্যবর্ধনেও ভূমিকা রাখছে এসব গাছ। কিন্তু কোনো ধরনের সরকারি সিদ্ধান্ত ও নিলাম ছাড়াই এসব গাছ কাটছেন আওয়ামী লীগ নেতা রনজু খান। গত দুই দিনে ২০টি গাছ কেটেছেন তিনি। কেটে ফেলা এসব গাছের মূল্য লক্ষাধিক টাকা।

এ বিষয়ে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি সদস্য রনজু খান বলেন, ‘সরকারি সড়কের পাশে গাছগুলো আমি রোপণ করেছি। তাই এখন কেটে নেওয়া হচ্ছে। এতে দোষের কিছু দেখছি না। সড়কের পাশের জমিও আমার। আমার গাছ, আমিই কাটছি। তবে এই গাছ কাটতে সরকারি অনুমতি নেওয়া হয়নি।’

শেরপুর উপজেলা বন কর্মকর্তা আব্দুর রহিম জানান, সড়কটির পাশে লাগানো গাছগুলো তাঁর দপ্তরের নয়। তবে রাস্তার পাশের এসব গাছ সরকারি। তাই ইউপি সদস্য গাছগুলো এভাবে কাটতে পারেন না।

শেরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লিয়াকত আলী সেখ বলেন, ‘গাছগুলো সরকারি না ব্যক্তি মালিকানাধীন, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সরকারি হলে অবশ্যই দোষী ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা