kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ মাঘ ১৪২৭। ২৮ জানুয়ারি ২০২১। ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

রাজৈর পৌর নির্বাচন

নৌকার প্রতিদ্বন্দ্বী পাঁচ আ. লীগ নেতা

বিএনপি থেকে একক প্রার্থী হিসেবে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে লড়ছেন মোহাম্মদ জাকির হোসেন

বিনয় জোয়ারদার, রাজৈর (মাদারীপুর)   

২ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নৌকার প্রতিদ্বন্দ্বী পাঁচ আ. লীগ নেতা

মাদারীপুরের রাজৈর পৌরসভা নির্বাচন আগামী ১০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এরই মধ্যে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ও প্রতীক বরাদ্দের কাজ শেষ হয়েছে। এবারের নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে লড়ছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত পাঁচ নেতা। অন্যদিকে বিএনপি থেকে একক প্রার্থী হিসেবে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে লড়ছেন মোহাম্মদ জাকির হোসেন।

জানা গেছে, রাজৈর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মরহুম হারুন উর রশীদ মোল্লার মেয়ে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমা রশীদ। তাঁর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান পৌর মেয়র শামীম নেওয়াজ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজৈর সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান বক্কার, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক গোপা শারমিন, আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাবেক উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লিতা কুদ্দুস ও মোস্তাফিজুল হক (নাদির)। অন্যদিকে বিএনপি থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়ে একক প্রার্থী হিসেবে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন মোহাম্মদ জাকির হোসেন।

এদিকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য রিটার্নিং অফিসারের মাধ্যমে ব্যক্তিগত প্রতীক পেয়ে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। জয়ের ব্যাপারে সবাই আশাবাদী।

আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নাজমা রশীদ বলেন, ‘পৌর নির্বাচনে এই প্রথম দলীয় প্রতীক দেওয়া হয়েছে। দলের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বী থাকতেই পারে। এতে আমি বিচলিত নই। আমি রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। দল আমার পক্ষে কাজ করছে। ইনশাল্লাহ আমি বিজয়ী হব।’

নৌকার প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে নারিকেলগাছ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন বর্তমান মেয়র ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শামীম নেওয়াজ। তিনি বলেন, ‘আগেরবার আমি বিপুল ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলাম। প্রায় ছয় বছর জনগণের সেবা করেছি। জনগণ আমার সঙ্গে সব সময় আছে। তাই নির্বাচনে আমিই বিজয়ী হব।’

চামচ প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান বক্কার বলেন, ‘২৬ বছর ধরে রাজনীতি করছি। এখনো দল থেকে তেমন কিছু পাইনি। নৌকার প্রার্থী থেকে আমার রাজনৈতিক অর্জন অনেক বেশি। সুখে-দুঃখে সব সময় দলের সঙ্গে থেকেছি। আশা করি, জনগণ আমাকেই নির্বাচিত করবে।’

রাজৈর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালেব মিয়া বলেন, ‘একই দল থেকে একাধিক প্রার্থী হওয়া দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের শামিল। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কথা বলতে রাজি হননি বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী জাকির হোসেন।

রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান জানান, রাজৈর পৌর নির্বাচনে সাতজন মেয়র পদে, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৯ জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এখন পর্যন্ত সবকিছুই ঠিকভাবে চলছে। এবারই এখানে প্রথম ইভিএমএ ভোট নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা