kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

শিশুটিকে ঝলসে দিল মামি

গৌরনদী (বরিশাল) প্রতিনিধি   

২৬ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বরিশালের গৌরনদীতে নানাবাড়িতে আশ্রিত এক মেয়েশিশুর স্পর্শকাতর জায়গায় গরম খুন্তি দিয়ে ঝলসে দিয়েছেন তার মামি। দুই শিশুর ঝগড়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে পৈশাচিক এ ঘটনা ঘটান মামি শাহনাজ বেগম (৩৪)। উপজেলার উত্তর বিজয়পুর গ্রামে ঘটেছে এ ঘটনা। শাহনাজ ওই গ্রামের গ্রিলমিস্ত্রি রমজান সরদারের স্ত্রী। ঘটনার পর দগ্ধ শিশুটিকে নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছিল ওই পরিবার। গত শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটলেও প্রকাশ পেয়েছে গতকাল বুধবার। শিশুটির বাবা গতকাল সন্ধ্যায় শাহনাজ বেগমকে অভিযুক্ত করে গৌরনদী মডেল থানায় মামলা করেন।

মামলার পর পুলিশ উপজেলার কলাবাড়িয়া গ্রামে বাবার বাড়িতে আত্মগোপনে থাকা শাহনাজকে গ্রেপ্তার করে। সেই সঙ্গে শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থা করেছে পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, তিন বছর আগে শিশুটির মায়ের সঙ্গে তার বাবার বিচ্ছেদ হয়। এর পর থেকে শিশুটি নানাবাড়িতে মায়ের সঙ্গে থাকছে। শিশুটির বাবা প্রতি সপ্তাহে কিছু খাবার ও টাকা দেন। শিশুটির বয়স পাঁচ বছর পূর্ণ হলে বাবার কাছে চলে যাওয়ার কথা। পাঁচ বছর পূর্ণ হতে দুই মাস বাকি আছে। গতকাল সন্ধ্যায় শিশুটির বাবা জানান, গত সোমবার শীতের কাপড় ও কিছু খাবার নিয়ে গিয়ে দেখেন ঘরের দরজা বন্ধ। প্রতিবেশী একজন জানান যে গত শনিবার বিকেলে মেয়েকে গরম খুন্তি দিয়ে স্পর্শকাতর জায়গায় ছেঁকা দিয়েছেন শাহনাজ। এতে সে ঝলসে গেছে।

গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক আফজাল হোসেন জানান, গতকাল সন্ধ্যায় শিশুটিকে উদ্ধার এবং অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা