kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা

মেহেরপুর প্রতিনিধি   

২৪ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা

ফারুক হোসেন

মেহেরপুরে সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাঠকর্মী ফারুক হোসেনকে (৩৯) কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে শহরের তাঁতীপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফারুক হোসেন তাঁতীপাড়ার মৃত ফজিলা খাতুনের ছেলে। তাঁর বাবা সাখাওয়াত অনেক আগে থেকে অন্যত্র থাকেন।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, নিহত ফারুকের দুই ছেলে। বড় ছেলে নাহিদ (১২) ও ছোট ছেলে নবাব (৪)। তিনি ২০০৮ সালে মেহেরপুর সমাজসেবা অধিদপ্তরে রাঁধুনি হিসেবে চাকরিতে যোগদান করেন। পরে বিভাগীয় পরীক্ষা দিয়ে মাঠকর্মী হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন। এ ছাড়া গতবারের মেহেরপুর পৌরসভা নির্বাচনে ৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচন করেন। মাত্র কয়েক ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন তিনি।

স্থানীয়রা জানায়, রাত সাড়ে ১১টার দিকে মেহেরপুর সদর থানা মোড়ের একটি দোকান থেকে মশার কয়েল কিনে বাড়ি ফিরছিলেন। আগে থেকে ওত পেতে থাকা কয়েকজন সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁকে পেছন দিক থেকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এতে তাঁর ঘাড়, পিঠ ও পায়ে গভীর ক্ষত সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তাঁর মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে মেহেরপুর পুলিশ সুপার এস এম মুরাদ আলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

মেহেরপুর সদর থানার ওসি শাহ দারা খান বলেন, ‘নিহতের বাড়ির ঠিক ২০ গজ দূরে সন্ত্রাসীরা এ হামলা চালিয়েছে। তাঁর পিঠে, ঘাড়ে ও পায়ে কোপানোর চিহ্ন রয়েছে। হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা