kalerkantho

শুক্রবার । ৭ কার্তিক ১৪২৭। ২৩ অক্টোবর ২০২০। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

মাছের জন্য ডুবছে ধান

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাছের জন্য ডুবছে ধান

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে জলকপাট বন্ধ থাকায় দুই পাশের মাটি ধসে প্রবল স্রোত ও জলাবদ্ধতার কবলে পড়েছে ছয়-সাত হাজার হেক্টর জমি। ছবি : কালের কণ্ঠ

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে চণ্ডীপুর ইউনিয়নের তিলাই নদীর ওপর ফোটামারী স্লুইস গেটটি এখন হাজারো কৃষকের গলার কাঁটায় পরিণত হয়েছে। বর্ষা মৌসুমে স্লুইস গেটের সব কপাট খুলে রাখার নিয়ম ও বাধ্যবাধকতা থাকলেও দুটি কপাট বন্ধ রেখে মাছ চাষ করছে একটি মহল।

কপাট বন্ধ রাখায় বৃষ্টির পানি ও উজানের ঢল এসে আটকা পড়ছে কৃষি জমিতে। তাতে আনুমানিক ছয়-সাত হাজার হেক্টর জমির ফসল পানির নিচে তলিয়ে আছে। এ বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে কালিকাপুর ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের কৃষক জাহাঙ্গীর আলম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগও করেছেন।

গতকাল সরেজমিনে দেখা গেছে, নদীর পানি প্রবল বেগে আমন ক্ষেতের দিকে প্রবাহিত হচ্ছে। ক্ষেতের ফসল অধিকাংশই পানির নিচে।

ফোটামারী গ্রামের বাসিন্দা হাবিবুর রহমান ও আলিফ নুর জানান, আইয়ুব মৌলভি নামের এক প্রভাবশালীর নেতৃত্বে কয়েক ব্যক্তি নদীর মাছ শিকার করতে স্লুইস গেটের চারটি কপাটের মধ্যে দুটি বন্ধ করে রেখেছে। বাকি দুটির ফাঁকা স্থানে বিশাল আকারের চোঙ্গা ও জাল বসানো হয়েছে। এখন প্রতিদিনই ক্ষেতের পানি বাড়ছে।

স্লুইস গেট রক্ষণাবেক্ষণ কমিটির সদস্যসচিব জুয়েল বলেন, ‘আমি শুনেছি আইয়ুব আলী মৌলভী কপাট বন্ধ রেখেছে।’

উপজেলা কৃষি সম্পসারণ কর্মকর্তা জানান, তাঁরা স্লুইস গেট রক্ষণাবেক্ষণ কমিটির লোকদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহানাজ মিথুন মুন্নী বলেন, ‘এখনো আমার টেবিলে অভিযোগের ফাইল আসেনি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা