kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ কার্তিক ১৪২৭। ৩০ অক্টোবর ২০২০। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দেয়াল চাপা

পার্বতীপুরে পিষ্ট পরিবার

দিনাজপুর ও পার্বতীপুর প্রতিনিধি   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পার্বতীপুরে পিষ্ট পরিবার

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে বিধ্বস্ত মাটির ঘর। ছবি : কালের কণ্ঠ

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ঘুমন্ত অবস্থায় দেয়াল ধসে একই পরিবারের চারজনের মৃত্যু হয়েছে। গত শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের ঝাউপাড়া গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মারা যাওয়া চারজন হলেন গৃহকর্তা স্বপন আলী (৩৮), স্ত্রী সারজেনা (৩৫), তাঁদের দুই ছেলে হোসাইন (৮) ও হাসিবুর (৫)। গতকাল সকালে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে।

স্থানীয়রা জানায়, মৃত স্বপন আলী পাশের সৈয়দপুর উপজেলার দোলাপাড়া গ্রামের আজাদ আলীর ছেলে। তিনি পার্বতীপুরের ঝাউপাড়া গ্রামের আবু সাঈদের মেয়ে সারজেনাকে বিয়ে করে ঘরজামাই হিসেবে বসবাস করছিলেন। তিনি পেশায় একজন ফেরিওয়ালা। গত শনিবার সন্ধ্যায় বৃষ্টি শুরু হলে তাড়াতাড়ি খাওয়া-দাওয়া করে বিছানা পেতে শুয়ে পড়েন স্বপন আলী ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা। মাঝরাতের কোনো এক সময় তাঁদের ওপর ঘরের মাটির দেয়াল ভেঙে পড়ে। সকালে এলাকার লোকজন স্বপন আলীর বাড়ির দেয়াল ভাঙা অবস্থায় দেখতে পায়। পরে লোকজন বাড়ির ভেতরে তাঁদের খোঁজাখুঁজি করে।

একপর্যায়ে তারা শিশু হাসিবুরের একটি হাত দেয়াল চাপাপড়া অবস্থায় দেখতে পায়। পরে মাটি সরাতে শুরু করলে একে একে চারটি লাশ বেরিয়ে আসে। এলাকায় হৃদয়বিদারক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এলাকাবাসীর কান্নায় পরিবেশ ভারী হয়ে ওঠে। এই মর্মান্তিক দৃশ্য দেখার জন্য আশপাশের শত শত মানুষ ঘটনাস্থলে ভিড় করে।

পার্বতীপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা বলেন, ‘থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।’

মন্তব্য