kalerkantho

রবিবার । ১২ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৯ সফর ১৪৪২

তাড়াশে সেতুর মুখ বন্ধ পতিত ৫০০ বিঘা জমি

তাড়াশ-রায়গঞ্জ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৯ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের বলদিপাড়া মৌজায় একটি সেতুর মুখ মাটি দিয়ে ভরাট করায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। এ কারণে তিনটি গ্রামের ৫০০ বিঘা জমি অনাবাদি হয়ে পড়েছে। এতে করে প্রায় ৬০ লাখ টাকা ক্ষতির মুখে পড়বেন ওই এলাকার তিন শতাধিক কৃষক। গতকাল দুপুরে বলদিপাড়া, দেশীগ্রাম ও উত্তর শ্যামপুর গ্রামের কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানায়, দেশীগ্রাম ও বলদিপাড়া গ্রামীণ সড়কের একটি সেতু দিয়ে তিনটি গ্রামের পানি নিষ্কাশন হয়ে থাকে। সম্প্রতি বলদিপাড়া গ্রামের ওসমান গনির ছেলে আব্দুল মালেক বাড়ি করার জন্য ওই সেতুর মুখ মাটি দিয়ে ভরাট করে বন্ধ করে দিয়েছেন। এতে সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা। এর ফলে প্রায় ৫০০ বিঘা জমি আবাদ করা সম্ভব হচ্ছে না।

এ প্রসঙ্গে বলদিপাড়া গ্রামের আব্দুল হামিদ বিশ্বাস বলেন, তাঁর সাত বিঘা জমি এই জলাবদ্ধতার কারণে চাষ করা সম্ভব হচ্ছে না। উত্তর শ্যামপুর গ্রামের খলিলুর রহমান বলেন, তাঁরও ২০ বিঘা জমি জলাবদ্ধতার কারণে অনাবাদি হিসেবে পড়ে থাকছে। একই কথা জানালেন আরো শতাধিক কৃষক। তাঁরা অভিযোগ করে বলেন, বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে জানালেও কোনো ধরনের প্রতিকার পাননি।

দেশীগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘পানিপ্রবাহের পথ দ্রুত তৈরি না করতে পারলে ব্যাপক ফসলহানি ঘটবে। আমিও বিষয়টি ইউএনওকে জানিয়েছি।’ তাড়াশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওবায়দুল্লাহ বলেন, ‘আমি নতুন দায়িত্ব নিয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে অবশ্যই আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা