kalerkantho

বুধবার । ২১ শ্রাবণ ১৪২৭। ৫ আগস্ট  ২০২০। ১৪ জিলহজ ১৪৪১

জামালপুর বিসিকের পানিদূষণ

পারফিউম ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ

মোস্তফা মনজু, জামালপুর   

৩১ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পারফিউম ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ

জামালপুর বিসিক শিল্পনগরীতে জমে থাকা পানিতে কারখানার রাসায়নিক ছড়িয়ে পড়েছে। আর এই কালচে সবুজ পানি থেকে ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ। ছবি: কালের কণ্ঠ

জামালপুর বিসিক শিল্পনগরীর রোকেয়া কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ (আরসিআই) লিমিটেডের সুগন্ধি তেল তৈরির বিপুল পরিমাণ রাসায়নিক তরল (পারফিউম জাতীয় পদার্থ) আশপাশের পানিতে ছড়িয়ে পড়েছে। আবদ্ধ পানি কালচে-সবুজ হয়ে গেছে এবং দুর্গন্ধে এলাকায় টিকে থাকা যাচ্ছে না।

বিসিক সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন কারখানার কর্মচারীরা জানান, গত সোমবার দুপুর থেকে হঠাৎ করে বিসিকের জলাবদ্ধ পানি থেকে উৎকট গন্ধ ছড়াচ্ছিল। তেলজাতীয় কী যেন গোটা এলাকার পানি ও বিসিকের পুকুরে ছড়িয়ে পড়েছে। পরে তাঁরা জানতে পারেন, বিসিক অফিসের পূর্ব পাশের রাসায়নিক প্রসাধনী তেল তৈরির কারখানা আরসিআই থেকে বিপুল পরিমাণ তরল রাসায়নিক পারফিউম পানিতে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এর প্রভাবে পানি কালচে-সবুজ হয়ে গেছে। গোটা বিসিক এলাকায় ছড়াচ্ছে উৎকট গন্ধ। মানুষ নাক ধরে চলাচল করছে। তবে এর প্রভাবে কোনো মাছ মরতে দেখা যায়নি।

সরেজমিনে দেখা গেছে, প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে বিসিক শিল্পনগরীর প্রধান রাস্তাসহ সব রাস্তায় হাঁটু সমান জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। পানিতে ছড়িয়ে পড়েছে তরল রাসায়নিক পদার্থ। বিসিকের বিভিন্ন কারখানার কর্মকর্তা ও কর্মচারী, এমনকি যে কারখানা থেকে এই তরল পদার্থ ছড়িয়ে পড়েছে সেটিরও কয়েকজন কর্মচারীকে মাস্কের ওপর দিয়ে রুমাল গুঁজে বেরিয়ে আসতে দেখা যায়। বিসিক অফিসসংলগ্ন জামালপুর-ঢাকা মহাসড়কে যাতায়াতকারী বিভিন্ন যানবাহনের যাত্রীদের উৎকট গন্ধে নাকে-মুখে রুমাল বা কাপড় চেপে চলাচল করতে হচ্ছে। গন্ধ এতটা তীব্র যে এর আশপাশে বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকা যায় না।

তবে এই তরল পদার্থ কোনো ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থ নয় দাবি করে আরসিআই লিমিটেডের পরিচালক রফিক আহমেদ বলেন, বৃষ্টিতে কারখানার ভেতরেও পানি জমেছে। গোটা বিসিক এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। কারখানার ভেতরে প্রায় ২০ লিটার পরিমাণ তরল মেনথল ও অন্যান্য পারফিউম মিশ্রিত নারিকেল তেল আকস্মিক পড়ে আবদ্ধ পানিতে ছড়িয়ে পড়ে। এগুলো ক্ষতিকর কোনো রাসায়নিক পদার্থ নয়। হঠাৎ করে বেশি পরিমাণ পারফিউম ছড়িয়ে পড়ায় সবাই এটাকে রাসায়নিক পদার্থ মনে করে দুর্গন্ধ হিসেবে ধরে নিয়েছে। কিন্তু এতে মাছের বা মানুষের কোনো ক্ষতি হবে না।

জামালপুর বিসিকের সহকারী মহাব্যবস্থাপক (এজিএম) সম্র্রাট আকবর জানান, এই রাসায়নিক তরলের কারণে বিসিকের পুকুরের মাছের বা কোনো মানুষের ক্ষয়ক্ষতি হয় কি না তা পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। ভবিষ্যতে যাতে এমন না হয় এ জন্য কারখানা কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করা হয়েছে।

মন্তব্য