kalerkantho

সোমবার । ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭। ১০ আগস্ট ২০২০ । ১৯ জিলহজ ১৪৪১

করোনার ভুয়া প্রতিবেদন

রূপপুর মেডিকেয়ার অবশেষে বন্ধ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি   

১৬ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অবশেষে ঈশ্বরদীর পাকশী ইউনিয়নের রূপপুর মেডিকেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সব কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে পাবনা স্বাস্থ্য বিভাগ। নির্দেশ পাওয়ার পর গতকাল বুধবার সকাল থেকেই কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে বলে জানানো হয় ডায়াগনস্টিক সেন্টারের অভ্যর্থনা কক্ষ থেকে। ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. শফিকুল ইসলাম শামীমও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অনুমোদন ছাড়াই পাঁচ-ছয় হাজার করে টাকা নিয়ে করোনার ভুয়া নেগেটিভ রিপোর্ট দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে গত ৮ জুলাই ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক মো. আব্দুল ওহাব রানাসহ অন্যদের বিরুদ্ধে মামলা করে পুলিশ। ওই মামলায় বর্তমানে রানা পাবনা জেলহাজতে রয়েছেন। মামলার অন্য দুই আসামি হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান ডা. আবু সাইদ ও নাটোরের বড়াইগ্রামের নাটাবাড়িয়া গ্রামের সুজন আহমেদ।

গতকাল দুপুরে রূপপুর মেডিকেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে গিয়ে দেখা যায়, ভেতর থেকে দ্বিতীয় ফটকটি বন্ধ। আশপাশের বাসিন্দারা জানান, সকাল থেকে মেডিকেয়ারটি বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে মেডিকেয়ারের দোতলায় ভবন মালিক পরিবার নিয়ে বসবাস করায় ফটক মাঝেমধ্যে খুলতে দেখা যায়।

আরএমও ডা. শফিকুল ইসলাম শামীম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘রূপপুর মেডিকেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সব কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখার জন্য পাবনা সিভিল সার্জন অফিস থেকে নির্দেশনা এসেছে। নির্দেশনাটি মেডিকেয়ার কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

ঈশ্বরদী থানার ওসি মো. নাসীর উদ্দীন জানান, রূপপুর মেডিকেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক আব্দুল ওহাব রানাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা