kalerkantho

মঙ্গলবার  । ২০ শ্রাবণ ১৪২৭। ৪ আগস্ট  ২০২০। ১৩ জিলহজ ১৪৪১

ফেরত গেল বিএনপির এমপির বরাদ্দের গম

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি   

১২ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বগুড়ার কাহালুতে কাজ না হওয়ায় বিএনপির এক সংসদ সদস্যের (এমপি) অনুকূলে বরাদ্দ দেওয়া কাবিখার দুটি প্রকল্পের ১৫ টন গম ফেরত গেছে বলে অভিযোগ।

জানা যায়, ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ (টিআর) কর্মসূচির আওতায় ১৫টি প্রকল্পের জন্য ১১ লাখ ৯৭ হাজার ২০৫ টাকা ও কাবিখার ১০টি প্রকল্পের জন্য ৫০.৫৪২৫ টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয় উপজেলা পরিষদে।

এর মধ্যে স্থানীয় এমপি বিএনপির মোশারফ হোসেনের অনুকূলে প্রথম পর্যায়ে টিআর-এর ৫০টি প্রকল্পের জন্য ২৪ লাখ ৬৭ হাজার ৬৬৬ টাকা ও কাবিখার ১০টি প্রকল্পের ৮০ মেট্রিক টন গম বরাদ্দ দেওয়া হয়। দ্বিতীয় পর্যায়ে টিআর-এর ৪৬টি প্রকল্পের জন্য ২৫ লাখ ৬০ হাজার টাকা ও কাবিখার আটটি প্রকল্পের জন্য ৮৮ টন গম বরাদ্দ দেওয়া হয় তাঁকে।  

এর মধ্যে এমপির কাবিখা প্রকল্পের বীরকেদার ইউনিয়নের বীরকেদার ফকিরপাড়া শহিদুলের বাড়ি থেকে সাত্তারের বাড়ি পর্যন্ত মাটি ভরাট ও ইট সোলিংয়ের কাজ ঠিকমতো হয়নি বলে অভিযোগ। ফলে ওই প্রকল্পের ছয় টন গম ফেরত গেছে। এ ছাড়া জামগ্রাম ইউনিয়নের সর্দারপাড়া পাকা রাস্তা থেকে পশ্চিম দিকে ইট সোলিং রাস্তা পুনঃসংস্কার প্রকল্পের সংশোধনী দেওয়ায় সেটা অনুমোদন না হওয়ায় প্রকল্পটির ৯ টন গম ফেরত গেছে।

এ বিষয়ে জানতে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) এইচ এম আশরাফুল আরেফীনের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি ধরেননি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মাছুদুর রহমান বলেন, ‘কাজ না হওয়ায় এমপির দুটি প্রকল্পের ১৫ টন গম ফেরত দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা দুটি উপজেলার দায়িত্বে আছেন। এ জন্য তাঁর প্রতিদিন কাহালুতে অফিস করা সম্ভব হয় না।’

মন্তব্য