kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৬ আশ্বিন ১৪২৭ । ১ অক্টোবর ২০২০। ১৩ সফর ১৪৪২

ধামরাই

সালিসে মাকে অপমান, ছেলের আত্মহত্যা

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১০ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সালিসে আবদুল আজিজের (২৩) মাকে গালাগাল করেছিলেন মাতবররা। বকাবাজি করা হয়েছিল তাঁকেও। কিন্তু এই অপমান সহ্য করতে না পেরে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার রাতে ঢাকার ধামরাইয়ের চারডাউটিয়া গ্রামে। খবর পেয়ে পুলিশ গতকাল বুধবার দুপুরে তাঁর লাশ উদ্ধার করেছে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

আজিজ পেশায় ট্রাকচালক ছিলেন।

এ ঘটনায় আজিজের বাবা আবদুস সালাম আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগে মামলা করেছেন। মামলায় অভিযুক্ত মাতবর মোশারফ হোসেন ও নীলচানের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতপরিচয় আরো দুজনকে আসামি করা হয়েছে।

গ্রামবাসী ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা যায়, স্ত্রী আয়েশা বেগম, ছেলে আজিজ ও ছেলের বউ সাথীকে নিয়ে ডাউটিয়ার মাহতাব আলীর বাড়িতে ভাড়া থাকেন দিনমজুর সালাম। আজিজের ভাড়া বাড়ির কাছেই তাঁর শ্বশুরবাড়ি।

সাথী অন্তঃসত্ত্বা থাকায় মেডিক্যাল চেকআপের জন্য মঙ্গলবার তাঁকে নিয়ে কালামপুরে ক্লিনিকে যান শাশুড়ি আয়েশা। এ সময় সাথীর মাও তাদের সঙ্গে যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সময়ের অভাবে তাঁরা তাঁকে নিতে পারেননি।

সন্ধ্যায় আজিজের মা-বাবার কাছে এর কৈফিয়ত চান নীলচান। তিনি আজিজের দূরসম্পর্কের মামাশ্বশুর। এ সময় আজিজের সঙ্গে তাঁর কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে রাতে পোল্ট্রি ব্যবসায়ী ও মাতবর মোশারফসহ চার থেকে পাঁচজনকে নিয়ে পারিবারিকভাবে সালিস বৈঠক বসান নীলচান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা