kalerkantho

শুক্রবার। ১৭ আশ্বিন ১৪২৭। ২ অক্টোবর ২০২০। ১৪ সফর ১৪৪২

কুষ্টিয়ার পশুর হাট ফেসবুকে

তারিকুল হক তারিক, কুষ্টিয়া   

৯ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনা দুর্যোগের কথা মাথায় রেখে এবার অনলাইনে পশুর হাট চালু করেছে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসন। তাই এবার হাটে না গিয়ে ঘরে বসেই কোরবানির পশু কেনাকাটা করতে পারবে ক্রেতারা।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, ‘কোরবানির পশুর হাট’ কুষ্টিয়া নামের ফেসবুকে একটি পেজ খোলা হয়েছে। সেখানে খামারিদের বিক্রয়যোগ্য পশুর ছবি, সম্ভাব্য ওজন, দাম, বিক্রেতার নাম-ঠিকানাসহ পোস্ট করার অনুরোধ করা হবে। সেখান থেকে ক্রেতারা তাদের পছন্দমতো পশু কিনতে পারবে।

কুষ্টিয়া জেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের তথ্য মতে, কুষ্টিয়ার ছয় উপজেলায় ৩৮ হাজার গরু-ছাগলের খামার রয়েছে। এসব খামারে এক লাখ পাঁচ হাজার গরু, ৭০ হাজার ছাগল, দুই হাজার ভেড়াসহ অন্যান্য পশু মোটাতাজাকরণ করা হচ্ছে। জেলায় মোট ১৫টি পশুর হাট রয়েছে। তবে এবার অনলাইনেও চলবে পশু বিক্রি।

কুষ্টিয়ার খামারিরা জানান, গত বছর কোরবানির পশু বিক্রি করে ভালো লাভ করেছিলেন তাঁরা। তাই এবার আরো বেশিসংখ্যক গরু-ছাগল পালন করা হয়েছে। তবে করোনার কারণে প্রত্যাশিত দামে পশু বিক্রি করতে পারবেন কি না—তা নিয়ে কিছুটা দুশ্চিন্তায় রয়েছেন খামারিরা।

মিরপুর উপজেলার গৌড়দহ গ্রামের খামারি ফিরোজ হোসেন বলেন, ‘বছরখানেক আগে একসঙ্গে ১৮টি দেশি গরু কিনেছিলাম। কিন্তু বর্তমানে গোখাদ্যের দাম বেড়েছে। তা ছাড়া করোনা দুর্যোগ চলছে। তাই পশু বিক্রি করে লাভের আশা নিয়ে দুশ্চিন্তা দেখা দিয়েছে।’

কুষ্টিয়া জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে হৃষ্টপুষ্ট করায় কুষ্টিয়ার গরুর ভালো চাহিদা রয়েছে। এসব গরু কুষ্টিয়ার মানুষের ৩০ শতাংশ চাহিদা মিটিয়ে ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হবে। একই সঙ্গে করোনার কারণে এবার কিছু খামারি অনলাইনে গরু বিক্রির কার্যক্রম চালাবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা