kalerkantho

বুধবার । ২১ শ্রাবণ ১৪২৭। ৫ আগস্ট  ২০২০। ১৪ জিলহজ ১৪৪১

ধুনটে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা কার্যক্রম

তালিকাভুক্ত ৬ হাজার মানুষ টাকা পায়নি

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি   

৭ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তালিকায় নাম থাকার পরও বগুড়ার ধুনট উপজেলায় প্রায় ৫৩ শতাংশ হতদরিদ্র পরিবারের কাছে মানবিক সহায়তার দুই হাজার ৫০০ টাকা পৌঁছেনি। তালিকায় নাম থাকা সত্ত্ব্বেও টাকা না পাওয়ায় হতাশায় রয়েছেন এসব পরিবারের লোকজন। তবে তথ্যে গরমিল থাকায় টাকা পেতে দেরি হচ্ছে বলে জানান স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।

করোনায় কর্মহীন ৫০ লাখ পরিবারকে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আড়াই হাজার টাকা করে নগদ সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ধুনট উপজেলায় একটি পৌরসভা ও ১০ ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিরা সাত হাজার ৮৬২ জনের নামের তালিকা চূড়ান্ত করেন।

ঈদুল ফিতরের আগে মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশ, রকেট, নগদ ও শিওরক্যাশের মাধ্যমে প্রতিটি পরিবার নগদ দুই হাজার ৫০০ টাকা করে সহায়তা পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তালিকায় নাম থাকা সত্ত্ব্বেও এ উপজেলার প্রায় ছয় হাজার মানুষের হাতে টাকা পৌঁছেনি। তবে তালিকাভুক্ত সাত হাজার ৮৬২ জনের মধ্যে টাকা পেয়েছেন মাত্র এক হাজার ৯২৬ জন।

পিরহাটি গ্রামের নবিদুল ইসলাম বলেন, ‘আমি এখনো পাইনি। ইউপি চেয়ারম্যান বলছেন, তথ্য জটিলতায় ধীরে ধীরে টাকা পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।’

উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হারুন-অর রশিদ সেলিম বলেন, ‘জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বরের সঙ্গে নিবন্ধিত মোবাইল নম্বরের মিল নেই। আবার তালিকায় নাম থাকলেও মোবাইল নম্বর অন্যের। এ ধরনের বেশকিছু তথ্যের গরমিল থাকায় সুবিধাভোগীদের হাতে টাকা পৌঁছেনি। তথ্য যাচাই-বাছাই ও সংশোধনের মাধ্যমে সঠিক করে তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। তবে বাজারে সিম কার্ড সংকটের কারণে এ কাজে কিছুটা বিঘ্ন ঘটছে।’

ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সঞ্চয় কুমার মহন্ত বলেন, তালিকায় নাম থাকা সত্ত্ব্বেও তথ্যে গরমিল থাকায় সুবিধাভোগীদের হাতে যথাসময়ে টাকা পৌঁছেনি।

মন্তব্য