kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭। ১১ আগস্ট ২০২০ । ২০ জিলহজ ১৪৪১

আন্দোলনের কৌশল কোয়ারেন্টিন

আট দফা দাবি রামেক হাসপাতালের ইন্টার্নদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

৩ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চিকিৎসাসেবা দেওয়া বন্ধ রেখে স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টিনে আছেন রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। আট দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে গত রবিবার থেকে স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টিনে আছেন তাঁরা। ফলে হাসপাতালটির চিকিৎসাসেবা কার্যক্রম মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ভাষ্য, তাঁদের অনেক চিকিৎসক ও সহকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তবু সুরক্ষা সামগ্রীসহ প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধার ব্যবস্থা করা হয়নি তাঁদের জন্য। তাই স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টিনে থাকছেন।

অন্যদিকে ইন্টার্নরা স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টিনে থাকায় হাসপাতালটির সেবা অনেকটা সিনিয়র চিকিৎসকনির্ভর হয়ে পড়েছে। এর ওপর হাসপাতালের অনেক চিকিৎসক ও নার্স করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে বেশির ভাগ ওয়ার্ডেই চিকিৎসক সংকট দেখা দিয়েছে। সবমিলিয়ে অন্য চিকিৎসকরা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন।

রামেক ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি মিজানুর রহমান জানান, তিনিসহ বেশ কয়েকজন ইন্টার্ন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ কারণে অন্য ইন্টার্নরা কোয়ারেন্টিনে আছেন। তবে তাঁরা চিকিৎসাসেবা দিতে গিয়ে বিভিন্নভাবে অবহেলার শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ মিজানুরের। তাই কর্তৃপক্ষের কাছে বেশ কয়েকটি দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

হাসপাতালের সিনিয়র চিকিৎসকরাও দ্রুত ইন্টার্নদের সুযোগ-সুবিধা বাড়িয়ে তাঁদের কাজে ফেরানোর জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। পাশাপাশি ইন্টার্নদের মনোভাব পরিবর্তন করে কাজে যোগ দেওয়ার আহবান ও জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে রামেক হাসপাতালের উপপরিচালক সাইফুল ফেরদৌস বলেন, ‘চিকিৎসকরা অনেকেই করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। ইন্টার্নরাও কাজে আসছেন না। এতে চিকিৎসাসেবা কিছুটা হলেও ব্যাহত হচ্ছে। ইন্টার্নদের দাবিগুলোও আমরা ভেবে দেখছি। দাবিগুলো বাস্তবায়নের জন্য সাধ্যমতো চেষ্টা করব।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা