kalerkantho

বুধবার । ৩১ আষাঢ় ১৪২৭। ১৫ জুলাই ২০২০। ২৩ জিলকদ ১৪৪১

রংপুরে আইনজীবী খুন

দুই স্থানে আরো এক হত্যা, দুই লাশ

রংপুর অফিস, শাজাহানপুর (বগুড়া) ও তাড়াশ-রায়গঞ্জ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৬ জুন, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চুরি করতে দেখে ফেলার ‘অপরাধে’ রংপুরে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আসাদুল হককে ছুরিকাঘাত ও গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শুক্রবার দুপুরে রংপুর নগরীর ধর্মদাস বারোআউলিয়া গ্রামে নিজ বাড়িতে তাঁকে হত্যা করা হয়। আসাদুল রংপুর জজ কোর্টের সাবেক সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর ছিলেন।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবক রতন মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ। সে একই গ্রামের জাফর আলী ড্রাইভারের (মৃত) ছেলে। রতন দীর্ঘদিন ধরে মাদক সেবন, চুরি-ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত বলে অভিযোগ আছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে আইনজীবীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে বলে রংপুর মেট্রোপলিটন তাজহাট থানার ওসি শেখ রোকনুজ্জামান জানিয়েছেন। তিনি আরো জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া রতনের সহযোগীকে গ্রেপ্তারের চষ্টা চলছে।

আইনজীবী আসাদুলের স্ত্রী সাবেরা রহমান শেফালী অভিযোগ করে বলেন, ‘করোনার কারণে আমি গ্রামের বাড়ি মিঠাপুকুরে ছিলাম। সেখান থেকে খবর পেয়ে এসে দেখি আসাদুলকে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। এর আগেও রতন মিয়া একাধিকবার এই বাড়িতে চুরি করেছে। কিন্তু গ্রাম্য বিচারে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এবার তার চুরি করা দেখে ফেলায় সে আমার স্বামীকে খুন করেছে।’ এ সময় হত্যাকারীর সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন শেফালী।

অন্যদিকে বগুড়ার শাজাহানপুরে গতকাল জুমার নামাজ পড়তে যাওয়ার পথে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবু হানিফ প্রামাণিক ওরফে মিস্টারকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। দলীয় কোন্দল ও প্রভাব বিস্তারের জেরে তাঁকে হত্যা করা হতে পারে বলে স্থানীয়দের ধারণা।

আবু হানিফ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধে হত্যাসহ একাধিক মামলা আছে বলে জানা গেছে। শাজাহানপুর থানার ওসি আজিম উদ্দীন জানান, আবু হানিফকে হত্যার কারণ এখনো জানা যায়নি।

এর আগে সকালে একই উপজেলার বনানী-রানীরহাট সড়ক থেকে পোশাককর্মী মিম আকতারের মুখ থেঁতলানো লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

স্থানীয়দের ধারণা, ধর্ষণের পর তাঁকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে। মিম কাহালু উপজেলার পচুয়া গ্রামের মিন্টু মিয়ার মেয়ে। ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন তিনি।

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে গৃহবধূ নারগিস আক্তারের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃস্পতিবার রাতে নওখাদা গ্রামে। খবর পেয়ে পুলিশ গতকাল বিকেলে লাশ উদ্ধার করেছে। এ ব্যাপারে প্রাথমিকভাবে অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা