kalerkantho

শনিবার । ২৭ আষাঢ় ১৪২৭। ১১ জুলাই ২০২০। ১৯ জিলকদ ১৪৪১

বদরগঞ্জে ব্রি হাইব্রিড-৫ ধান চাষে কৃষকের সাফল্য

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, রংপুর   

৩ জুন, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বদরগঞ্জে ব্রি হাইব্রিড-৫ ধান চাষে কৃষকের সাফল্য

রংপুরের বদরগঞ্জে নতুন জাতের ব্রি হাইব্রিড-৫ ধান চাষ করে সাফল্যের মুখ দেখছেন চাষি মশিউর রহমান। উপজেলা রামনাথপুর ইউনিয়নের ঘাটাবিল এলাকার ওই চাষি এবারে পরীক্ষামূলক প্রদর্শনীতে ৩৩ শতাংশ জমিতে নতুন জাতের ধানের চারা রোপণ করে বাম্পার ফলন পেয়েছেন। প্রতি হেক্টরে আট মেট্রিক টন ধান উৎপাদন সম্ভব হবে, যা অন্যান্য প্রচলিত জাতের ধান চাষের তুলনায় বেশি।

সরেজমিন দেখা যায়, বদরগঞ্জ উপজেলা শহর থেকে প্রায় আট কিলোমিটার দূরে রামনাথপুর ইউনিয়নের ঘাটাবিল গ্রাম। এই এলাকার চাষি মশিউর রহমান স্থানীয় কৃষি বিভাগের পরামর্শে ৩৩ শতাংশ জমিতে ব্রি হাইব্রিড-৫ জাতের ধান চাষ করেন। গতকাল মঙ্গলবার ওই ধানক্ষেত পরিদর্শন করেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা মো. জোবায়দুর রহমান, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা রাতু রুমানা খাতুন ও সেকেন্দার আলী। তাঁদের উপস্থিতিতে ধান কাটা ও মাড়াই করা হয়।

স্থানীয় কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, এবারে উপজেলার ১০ ইউনিয়নের ১৬ হাজার ৬৫০ হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষ করা হয়েছে। অতীতের রেকর্ড ভঙ্গ করে এবার বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। এর মধ্যে পরীক্ষামূলক প্রদর্শনী দিয়ে ব্রি উদ্ভাবিত হাইব্রিড-৫-এর নতুন ধান চাষ করা হয়। বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের (ব্রি) পরামর্শে ও স্থানীয় কৃষি বিভাগের তত্ত্বাবধানে দুই কেজি ব্রি ধানবীজ গাজীপুর থেকে সরবরাহ করা হয়েছিল কৃষক মশিউর রহমানকে। তিনি বলেন, ‘এ ধান চাষ করে অন্য ধানের থেকে বাম্পার ফলন পেয়েছি। আগামী মৌসুমে এ ধানের বাজারজাত করা হলে ব্যাপকভাবে চাষাবাদ করা যাবে।’

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা মো. জোবায়দুর রহমান বলেন, ‘ব্রি হাইব্রিড-৫ ধানের কাণ্ড শক্ত। পোকামাকড়ের ঝুঁকি কম। বীজ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান বিএডিসি থেকে এ ধানের বীজ সরবরাহ করা হলে ব্যাপকভাবে চাষাবাদ সম্ভব হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা