kalerkantho

রবিবার । ২৮ আষাঢ় ১৪২৭। ১২ জুলাই ২০২০। ২০ জিলকদ ১৪৪১

৫৬ দিনে হাজার পার

সিলেট বিভাগে মৃত্যু ২০

সিলেট অফিস   

২ জুন, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৫৬ দিনে হাজার পার

সিলেটে করোনার বিস্তার ঘটছে আশঙ্কাজনকভাবে। প্রতিদিনই নমুনা পরীক্ষার জন্য ভিড় করছেন সাধারণ মানুষ। ছবিটি গতকাল সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতাল থেকে তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

সিলেট বিভাগের চার জেলায় গতকাল সোমবার সকাল পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এক হাজার ৪০ জন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২০ জন। সিলেটে গত ৫ এপ্রিল প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। সেই হিসাবে গতকাল ছিল ৫৭তম দিন। কিন্তু ৫৬ দিনে আক্রান্তের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে। বিভাগের চার জেলার মধ্যে করোনা আক্রান্ত সবচেয়ে বেশি সিলেটে আর সবচেয়ে কম মৌলভীবাজারে। সিলেটে ৫৫৫ জন, সুনামগঞ্জে ১৬৫ জন, হবিগঞ্জে ১৯২ জন ও মৌলভীবাজারে ১২৮ জন।

গতকাল পর্যন্ত সিলেট বিভাগে করোনা আক্রান্ত ১২৫ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে ৫২ জন সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে, সুনামগঞ্জের বিভিন্ন হাসপাতালে ৪১ জন, হবিগঞ্জের হাসপাতালে ৩০ জন ও মৌলভীবাজারে দুজন হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

সোমবার দুপুর পর্যন্ত সিলেট বিভাগে আক্রান্ত হয়ে মৃতদের মধ্যে সিলেট জেলায় ১৪ জন, হবিগঞ্জের একজন, সুনামগঞ্জের একজন এবং মৌলভীবাজারের চারজন। গতকাল দুপুরে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুনামগঞ্জের করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। করোনায় সুনামগঞ্জে এই প্রথম মৃত্যু।

সিলেট বিভাগের চার জেলায় রবিবার চিকিৎসক, সাংবাদিক, পুলিশ, স্বাস্থ্যকর্মীসহ আরো ৯৩ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এঁদের মধ্যে সিলেট জেলায় ২২ জন, সুনামগঞ্জে ২১ জন, হবিগঞ্জে ২০ জন এবং মৌলভীবাজারে ৩০ জন রয়েছেন।

সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলার করোনা নমুনা পরীক্ষা করা হয় এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ ল্যাব এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে। আর মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জের নমুনা পরীক্ষা করা হয় ঢাকায়।

অন্যদিকে করোনা শনাক্তে নমুনা পরীক্ষা করাতে প্রতিদিনই শামসুদ্দিন হাসপাতালে ভিড় বাড়ছে। প্রতিদিন যে পরিমাণ নমুনা সংগ্রহ হয় তা পরীক্ষা করা সম্ভব হয় না। নমুনা জট লাগলে অনেক সময় ঢাকায়ও পাঠাতে হয়। সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, ‘রোগী যেভাবে বাড়ছে, এর জন্য নতুন করে ভাবতে হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা