kalerkantho

সোমবার । ২৯ আষাঢ় ১৪২৭। ১৩ জুলাই ২০২০। ২১ জিলকদ ১৪৪১

আ. লীগ কর্মীর হাত-পায়ের রগ কেটে দিল প্রতিপক্ষ

নাটোরে প্রতিনিধি   

৬ মে, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাটোরের নলডাঙ্গায় প্রতিপক্ষের হামলায় আওয়ামী লীগ কর্মীর হাতে-পায়ের রগ কেটে দিয়েছেন ইউপি মেম্বার ও আওয়ামী লীগ নেতার স্বজনরা। গত সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নলডাঙ্গা উপজেলার ধামনপাড়া স্কুল মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বিপ্রবেলঘরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি মেম্বার এবং ধামনপাড়া গ্রামের লোকমান হোসেনের সঙ্গে একই গ্রামের ইউসুব আলী  টুটুলের জমি ও এলাকায় আধিপত্য নিয়ে বিরোধ। এই বিরোধের জের ধরে গত সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ধামনপাড়া স্কুল মাঠে বসে থাকা অবস্থায় লোকমান হোসেনের আত্মীয় আরিফ, জসিম, আসাদুর, আমিনুল রহমানসহ আট থেকে ৯ জনের একদল সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র নিয়ে টুটুলের ওপর হামলা চালায়। এ সময় টুটুলকে উপর্যুপরি কুপিয়ে তাঁর হাত ও পায়ের রগ কেটে দেয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় টুটুলকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁর শরীরের বিভিন্ন স্থানের রগ কেটে যাওয়ায় রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ থেকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে নলডাঙ্গা থানার ওসি হুমায়ুন কবির বলেন, ‘ঘটনার সঙ্গে জড়িতরা পলাতক থাকায় কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। এ ব্যাপারে একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত।’

এদিকে নাটোরের লালপুরে পূর্বশত্রুতার জেরে উপজেলার কদিমচিলান ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়াচিলান গ্রামের ওসমান গনির বাড়িতে হামলা, লুটপাট ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন নারী-পুরুষসহ আটজন। পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে শাহীন নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে।

আহতরা হলেন আখের ও তাঁর ছেলে আফসার, স্ত্রী শহীদা বেগম, ওসমান গনি ও তাঁর স্ত্রী আরজিনা বেগম, মুসা ও তাঁর স্ত্রী কুলসুন বেগম এবং মনিরুল।

এ বিষয়ে লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা বলেন, ‘এ ঘটনায় অভিযুক্ত শাহীন নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা