kalerkantho

শনিবার । ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৬ জুন ২০২০। ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

কুষ্টিয়ায় করোনা শনাক্তে কিট থাকলেও নেই পরীক্ষাগার

নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠাতে হচ্ছে ঢাকা খুলনা রাজশাহীতে স্থাপিত পরীক্ষাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

৮ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনাভাইরাস শনাক্তের জন্য গত সোমবার কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে ৫০০ কিট এসেছে। কিন্তু হাসপাতালটিতে কোনো পিসিআর পরীক্ষাগার নেই। ফলে সন্দেহভাজন রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হলেও ফলাফল পেতে বিভাগীয় পর্যায়ে স্থাপিত পিসিআর পরীক্ষাগারের ওপর নির্ভরশীল থাকতে হচ্ছে।

এদিকে ওই হাসপাতালে পিসিআর পরীক্ষাগার স্থাপনের জন্য জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে আবেদন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. তাপস কুমার সরকার বলেন, ‘এই হাসপাতালে সন্দেহভাজন রোগীদের নমুনা সংগ্রহে ৫০০ টেস্ট কিট, ১০০ পিপিই, ১০০টি গ্লাভস, এক হাজারটি মাস্ক ও ১০০টি ক্যাপ আমরা পেয়েছি। কিন্তু টেস্ট কিটসহ অন্য সরঞ্জাম দেওয়া হলেও আমাদের হাসপাতালে পিসিআর পরীক্ষাগার নেই। ফলে নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠাতে হচ্ছে ঢাকা, খুলনা বা রাজশাহীতে স্থাপিত পরীক্ষাগারে। এসব পরীক্ষাগারের নমুনা পৌঁছে দেওয়াসহ ফলাফল পেতেও দেরি হচ্ছে।’

এদিকে জেলা সিভিল সার্জন ডা. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘কুষ্টিয়ায় করোনা পরীক্ষায় ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে একটি পরীক্ষাগার স্থাপনে সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে আবেদন করা হয়েছে। এখানে পরীক্ষাগার স্থাপিত হলে নমুনা সংগ্রহসহ পরীক্ষার ফলাফল স্বল্প সময়ে পাওয়া যাবে। এতে কুষ্টিয়া, চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর, রাজবাড়ীসহ আশপাশের পাঁচ থেকে ছয়টি জেলার করোনা আক্রান্ত রোগী পরীক্ষা সুবিধা পাবে। এ ছাড়া পরীক্ষাগার স্থাপিত হলে করোনা রোগী ছাড়া পরে অন্য পরীক্ষায়ও পিসিআর মেশিন কাজে লাগানো যাবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা