kalerkantho

শুক্রবার । ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৫ জুন ২০২০। ১২ শাওয়াল ১৪৪১

রক্ষাকবচ ছাড়াই কাজ করছে ভাটা শ্রমিকরা

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৩ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান বাদে সব ধরনের দোকানপাট, গণপরিবহন ও জনসমাগম বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। তবে বন্ধ হয়নি ইটভাটা শ্রমিকদের কাজ ও ট্রাকে করে ভাটার মাটি পরিবহন। প্রয়োজনীয় সুরক্ষা সরঞ্জাম ছাড়াই ভাটার শ্রমিকদের দিয়ে কাজ করানো হচ্ছে বলে অভিযোগ। ফলে স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়েই ভাটায় কাজ করতে বাধ্য হচ্ছে শ্রমিকরা।

চিকিৎসকদের মতে, কাজের সময় শ্রমিকরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ সুরক্ষা নিশ্চিত করতে না পারলে সংক্রমণ ছড়াতে পারে। আর জেলা প্রশাসক বলছেন, করোনার ঝুঁকি এড়াতে মালিকদেরই ভাটা বন্ধের উদ্যোগ নিতে হবে।

জানা যায়, ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক ঘিরে উপজেলার কায়েমপুর ও গাড়াদহ ইউনিয়নে ১৬টি ভাটা আছে। এসব ভাটায় প্রায় আড়াই হাজার শ্রমিক কাজ করছে। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ছুটিতে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসহ অনেক ধরনের শিল্প-কারখানা বন্ধ আছে। একই সঙ্গে বন্ধ আছে দোকানপাট ও গণপরিবহন। তবে ছুটি নেই ভাটা শ্রমিকদের। প্রয়োজনীয় সুরক্ষা ছাড়াই কাজ করে যাচ্ছে তারা।

জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহমেদ বলেন, ‘করোনা নিয়ে দেশের মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। ভাটা বন্ধের পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা