kalerkantho

বুধবার । ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩ জুন ২০২০। ১০ শাওয়াল ১৪৪১

রাজশাহীতে তৈরি হচ্ছে করোনা পরীক্ষাগার

সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে কঠোর প্রশাসন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

২৮ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



রাজশাহীতে তৈরি হচ্ছে করোনা পরীক্ষাগার

প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে চারজন একসঙ্গে ঘুরে বেড়ানোর অপরাধে কান ধরে উঠবোস করায় পুলিশ। ছবিটি গতকাল সকাল ১০টায় রাজশাহীর গনকপাড়া মোড় থেকে তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

অবশেষে রাজশাহীতে করোনা পরীক্ষা করতে ল্যাব তৈরি করা হচ্ছে। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের ভাইরোলজি বিভাগে চারটি কক্ষ নিয়ে এ ল্যাব তৈরি হচ্ছে। আগামী বুধবার ল্যাবটি উদ্বোধন করা হতে পারে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এদিকে করোনার বিস্তার ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে জেলা প্রশাসন। গত বুধবার থেকেই প্রশাসন হার্ডলাইনে অবস্থান নেয়। এর মধ্যে বুধবার সকাল থেকে নগরীর দোকানপাট বন্ধ করে দেওয়াসহ অভিযান চালাতে থাকে বিভিন্ন স্থানে। এরপর বৃহস্পতিবার থেকে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরে আরো কঠোর অবস্থানে নামে প্রশাসন। এর মধ্যে অপ্রয়োজনে রাস্তায় ঘোরাফেরাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। নিষেধাজ্ঞার মধ্যে পড়ে এমন দোকানপাট খুলে রাখা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধেও তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিচ্ছে প্রশাসন। একই সঙ্গে সচেতনতার জন্য সেনাবাহিনী ও পুলিশের উদ্যোগে মাইকিংসহ নানাভাবে প্রচার চালানো হচ্ছে।

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে, করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য গত বৃহস্পতিবারই একটি মেশিন ঢাকা থেকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজে গিয়ে পৌঁছে। এরপর ওই দিন থেকেই মেশিনটি বসানোসহ যাবতীয় কার্যক্রম শুরু হয়। তবে এখনো বেশ কিছু কাজ বাকি রয়েছে, যা আগামী বুধবার নাগাদ শেষ হবে।

মেডিক্যাল কলেজের ভাইরোলজি বিভাগের ল্যাবে মেশিনটি বসানো হচ্ছে। এর জন্য আলাদা চারটি কক্ষ নেওয়া হয়েছে। তবে উদ্বোধনের আগে পরিপূর্ণ করোনা পরীক্ষা হচ্ছে কি না সেটি নিশ্চিত করা হবে। এর পরই আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে মেশিনটি, যেন এ নিয়ে জনমনে কোনো বিভ্রান্তি তৈরি না হয়। তবে বিষয়টি নিয়ে যোগাযোগ করা হলে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ নওশাদ আলী বলেন, ‘আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। তবে পুরো বিষয়টি নিয়ে এখনই মন্তব্য করতে চাই না।’

এদিকে প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের কারণে রাজশাহীর রাস্তাঘাটগুলো সকাল থেকেই ফাঁকা থাকছে। জরুরি প্রয়োজনে মাঝে মাঝে দু-একটি করে যানবাহন চলাচল করতেও দেখা যাচ্ছে। করোনা প্রতিরোধে রাজশাহী মহানগর পুলিশ ও সিটি করপোরেশনের গাড়িতে করে ছিটানো হচ্ছে স্প্রে। তবে মসজিদগুলোতে নামাজের জামাতের সময় মুসল্লিদের যাতায়াত প্রায় আগের মতোই রয়েছে। এতে করে সামাজিক পর্যায়ে করোনা ছড়ানোর শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। গতকাল শুক্রবারও মসজিদগুলোতে মুসল্লিদের ঢল নামে।

গতকাল সকাল থেকেই রাজশাহী নগরীসহ বিভিন্ন স্থানে টহল দেয় সেনাবাহিনীসহ পুলিশ। এ সময় পুলিশ নগরীতে অপ্রয়োজনে ঘোরাফেরা করার অপরাধে বেশ কয়েকজন যুবককে আটক করে কান ধরে উঠবোস করানোর পর ছেড়ে দেয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজশাহী নগরীর বোয়ালিয়া থানার ওসি নিবারণ চন্দ্র দাস। তিনি বলেন, ‘সরকারের ঘরে থাকার নির্দেশনা অমান্য করে এখনো কিছু মানুষ বাইরে ঘোরাফেরা করছে। আমরা তাদের নানাভাবে সচেতন করছি। তার পরও যারা কথা শুনছে না তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। কাউকে কাউকে উপস্থিত ছোট ছোট সাজা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে, যেন লোকলজ্জার ভয়ে সে এ ধরনের কাজ আর না করে।’

এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে রাজশাহী জেলা প্রশাসক হামিদুল হকের নেতৃত্বে অভিযানে নামে পুলিশ। এ সময় পুলিশ রাস্তার ধারে আড্ডা দেওয়ার সময় কয়েকজনকে পিটিয়ে বাসায় তাড়িয়ে দেয়। এ ছাড়া নগরীর কয়েকটি দোকানের চায়ের কেটলি ও কাপ জব্দ করে। নির্দেশনা অমান্য করে এসব চায়ের দোকান খোলা রাখা হয়।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক হামিদুল হক বলেন, ‘আমরা জেলার প্রতিটি এলাকায় মানুষকে সচেতন করতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছি। তার পরও যারা কথা শুনছে না, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। করোনা যেন সামাজিক পর্যায়ে না ছড়ায় সেই প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে বিদেশফেরতদের প্রতিও বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা