kalerkantho

সোমবার । ২৩ চৈত্র ১৪২৬। ৬ এপ্রিল ২০২০। ১১ শাবান ১৪৪১

তানোরে খাদ্যগুদাম থেকে ৬০ টন ধান গায়েব!

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

২৭ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজশাহীর তানোর উপজেলার কামারগাঁ খাদ্যগুদাম থেকে ৬০ মেট্রিক টন ধান গায়েব! খাদ্যগুদামের ওসি এলএসডি নয়ন কুমার ধানগুলো বিক্রি করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুশান্ত কুমার মাহাতো গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গুদামটি সিলগালা করে দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, কামারগাঁ খাদ্যগুদামের ওসি এলএসডি নয়ন কুমার গুদাম থেকে ৬০ মেট্রিক টন ধান বিক্রি করে দিয়েছেন এমন অভিযোগ পান জেলা প্রশাসক হামিদুল হক। বিষয়টি তিনি সরেজমিন তদন্তের জন্য জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক নাজমুল হক ও জেলা কারিগরি খাদ্য পরিদর্শক সিহাবুল ইসলামকে নির্দেশ দেন।

পরে মঙ্গলবার বিকেলে এ দুই কর্মকর্তা তদন্তের জন্য গুদামে যান। তাঁরা ৬০ মেট্রিক টন ধান কম পান। পরে তাঁরা বিষয়টি জেলা প্রশাসককে অবহিত করেন। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসক তানোরের ইউএনও সুশান্ত কুমার মাহাতোকে ঘটনাস্থলে গিয়ে গুদাম সিলগালা করার নির্দেশ দেন। সন্ধ্যায় গুদামটি সিলগালা করে দেন ইউএনও।

এ ব্যাপারে গুদাম কর্মকর্তা নয়ন কুমার বলেন, ‘তিন দিন আগে উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তার মৌখিক নির্দেশে দুটি চাল মিলকে ৩০ টন করে ৬০ টন ধান দেওয়া হয়েছে।’ উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা নিয়মিত অফিসে না আসার কারণে বরাদ্দপত্র অনুমোদন করা হয়নি। ধান বাইরে বিক্রি করা হয়নি বলেও দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে ইউএনও সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, ‘জেলা প্রশাসকের নির্দেশে কামারগাঁ খাদ্যগুদাম সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। সেখানে ধান নিয়ে সমস্যা দেখা দিয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা