kalerkantho

রবিবার । ২২ চৈত্র ১৪২৬। ৫ এপ্রিল ২০২০। ১০ শাবান ১৪৪১

৪ হাজার বিদেশফেরতকে খুঁজছে ফরিদপুর স্বাস্থ্য বিভাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

১৯ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফরিদপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে তিন হাজার ৯৯৩ জন বিদেশফেরত যাত্রীর তালিকা নিয়ে মাঠে নেমেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। তাঁদের নিজ উদ্যোগে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা থাকলেও তাঁরা সে নির্দেশ মানছেন না। তাঁরা গত ১ থেকে ১৫ মার্চ পর্যন্ত বিভিন্ন দেশ থেকে বাংলাদেশে এসেছেন। এঁদের বেশির ভাগই ভারত থেকে এসেছেন। এসব বিদেশফেরত লোককে খুঁজে খুঁজে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। গত মঙ্গলবার রাতে ফরিদপুরের জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার জানান, ইমিগ্রেশন পুলিশের তরফ থেকে ফরিদপুরের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাছে এ তালিকা সরবরাহ করা হয়েছে। এঁদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার নির্দেশনা রয়েছে। জেলা প্রশাসক করোনা নিয়ে আতঙ্ক না ছড়িয়ে যার যার অবস্থান থেকে সবাইকে সচেতন থাকার পরামর্শ দেন। তিনি আরো বলেন, বিদেশফেরত ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার জন্য পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান, ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ছিদ্দিকুর রহমান, ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক সাইফুর রহমান, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক এ এস এস আলী আহসান, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কার্তিক চক্রবর্তী প্রমুখ।

এদিকে গতকাল বুধবার সকালে যোগাযোগ করা হলে সিভিল সার্জন ছিদ্দিকুর রহমান জানান, জেলায় এখন পর্যন্ত ২২ জন বিদেশফেরত যাত্রী নিজে উদ্যোগী হয়ে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। যাঁরা নিজ উদ্যোগেই হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। জেলা শহরের বাইরে এখন পর্যন্ত চরভদ্রাসনে ১০ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক সাইফুর রহমান বলেন, ‘এজাতীয় রোগী এলে তাদের ভর্তি তো না করার কথা নয়। এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে দেখব।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা