kalerkantho

বুধবার । ২৫ চৈত্র ১৪২৬। ৮ এপ্রিল ২০২০। ১৩ শাবান ১৪৪১

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভাগের নাম পরিবর্তনের দাবি

অনশন চলছেই, অসুস্থ ৪৮ শিক্ষার্থী

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিভাগের নাম ফলিত পরিসংখ্যান করার দাবিতে অনশন করছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) পপুলেশন সায়েন্স অ্যান্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এরই মধ্যে এ কর্মসূচির ৫৩ ঘণ্টা পার হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে আগামী সোমবার এ বিষয়ে জরুরি সভা করার সিদ্ধান্ত হলেও অনশন অব্যাহত রেখেছেন তাঁরা। শিক্ষার্থীদের দাবি, বিভাগের নাম পরিবর্তন না হওয়া পর্যন্ত তাঁরা কর্মসূচি চালিয়ে যাবেন। 

অন্যদিকে অনশনের ফলে অন্তত ৪৮ শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাঁদের মধ্যে একজন রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অন্যদের  চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে অনশনস্থলে অন্তত ১০ জন শিক্ষার্থীকে স্যালাইন নিতে দেখা গেছে। এর আগে গত বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্যার জগদীশ চন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সামনে কর্মসূচি শুরু করেন তাঁরা।

মাস্টার্সের শিক্ষার্থী এস এম সোহাগ হোসাইন জানান, তাঁদের পপুলেশন সায়েন্স সম্পর্কিত ৩৪ ক্রেডিট এবং হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট সম্পর্কিত ১৬ ক্রেডিট পড়ানো হয়। এর সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত পরিসংখ্যান সিলেবাসের ১০১ ক্রেডিট পড়ানো হয়। যা বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) পরিসংখ্যান কিংবা ফলিত পরিসংখ্যানের সঙ্গে ৯৫ শতাংশ সামঞ্জস্যপূর্ণ। তাই বিভাগের নাম পরিবর্তন চান তাঁরা।

অন্যদিকে গতকাল সকালে অনশনরত শিক্ষার্থীদের দেখতে যান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া। এ সময় তাঁদের অনশন ভাঙার অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘তোমাদের উচিত উপাচার্যের প্রতি সম্মান জানিয়ে রুমে ফিরে যাওয়া। কেননা যিনি সমস্যা সমাধান করার সর্বোচ্চ ক্ষমতা রাখেন তিনিই তোমাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন।’ কিন্তু দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অনশন ভাঙবে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

প্রসঙ্গত, পিএসসিতে বিষয় কোড অন্তর্ভুক্তের দাবি জানিয়ে গত ১৯ জানুয়ারি থেকে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছিলেন বিভাগটির শিক্ষার্থীরা। কিন্তু এখন বিভাগের নাম পরিবর্তনের দাবি জানাচ্ছেন তাঁরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা