kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৪ চৈত্র ১৪২৬। ৭ এপ্রিল ২০২০। ১২ শাবান ১৪৪১

ছাত্রাবাসে অস্ত্রসহ আটক তিন ছাত্র

যশোর অফিস   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছাত্রাবাসে অস্ত্রসহ আটক তিন ছাত্র

যশোরে ছাত্রাবাস থেকে পুলিশের উদ্ধার করা অস্ত্র-গুলি, মাদকসহ আটক তিন ছাত্র। ছবি : কালের কণ্ঠ

যশোরে বেসরকারি ‘কাজী ছাত্রাবাস’-এ অভিযান চালিয়ে দুটি আগ্নেয়াস্ত্র, পাঁচ রাউন্ড গুলি, পাঁচটি হাতবোমা, পাঁচটি ধারালো অস্ত্র, মদ, গাঁজা এবং ইয়াবা জব্দ করেছে পুলিশ।

গোপন খবরের ভিত্তিতে গত মঙ্গলবার রাতে শহরতলির শেখহাটি এলাকায় অবস্থিত ছাত্রাবাসটিতে অভিযান চালায় তারা। এ সময় পলিটেকনিকের তিন শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে গেছেন ছাত্রলীগ নেতা জুয়েল।

পুলিশের দাবি, অস্ত্রগুলোর মূল মালিক জুয়েল। তিনি শেখহাটির চিহ্নিত সন্ত্রাসী। ছাত্রাবাসটি জুয়েল ও তাঁর সহযোগীদের গোপন আস্তানা এবং অস্ত্রভাণ্ডার হিসেবে ব্যবহূত হচ্ছিল। এখান থেকে অস্ত্র এবং মাদক চোরাচালানের সিন্ডিকেট চালানো হতো।

আটককৃতরা হলেন যশোর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তৌফিক ইসলাম, চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আবু হেনা রোকন এবং কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাফিউন।

যশোর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম রব্বানি জানান, গোপন খবরের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাঁর নেতৃত্বে কোতোয়ালি থানা-পুলিশের একটি দল কাজী ছাত্রাবাসে অভিযান চালায়। এ সময় একটি কক্ষ থেকে একটি পিতলের শটগান, একটি ওয়ান শ্যুটার গান, পাঁচ রাউন্ড গুলি, পাঁচটি হাতবোমা, তিনটি চাকু, দুটি রামদা, ৯টি রড, এক বোতল মদ, মদের পাঁচটি খালি বোতল, ১০০ পিস ইয়াবা, গাঁজা এবং দুটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে। একই সঙ্গে কক্ষটি থেকে তিন শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়।

তিনি আরো জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। জুয়েলকেও মামলার আসামি করা হবে।

গতকাল বুধবার বিকেলে কোতোয়ালি থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, ‘অভিযান এখনো চলছে। বিস্তারিত পরে জানানো হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা