kalerkantho

শনিবার । ২১ চৈত্র ১৪২৬। ৪ এপ্রিল ২০২০। ৯ শাবান ১৪৪১

ঝিকরগাছায় ২৬ ইটভাটার ১৫টিই অবৈধ

ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধি   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঝিকরগাছায় ২৬ ইটভাটার ১৫টিই অবৈধ

যশোরের ঝিকরগাছায় অধিকাংশ ইটভাটা ফসলি জমির পাশেই গড়ে তোলা হয়েছে। ছবিটি উপজেলার মল্লিকপুর থেকে তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় ২৬টি ইটভাটার মধ্যে ১৫টিই অবৈধ। এসব ইটভাটার বৈধ কাগজপত্র নেই। তা ছাড়া বৈধ ১৩টি ইটভাটার মধ্যে অন্তত ছয়টির নবায়ন নেই। তার পরও বছরের পর বছর দেদার চলছে ভাটাগুলো। অবৈধভাবে গড়ে তোলা এসব ভাটা বন্ধের দাবিতে সংশ্লিষ্ট এলাকাবাসী জেলা প্রশাসকের কাছে একাধিক আবেদনও করেছেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কোনো নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গড়ে তোলা হয়েছে ২৬টি ইটভাটা। এসব ভাটার অদূরে রয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, জনবসতি, ফসলের মাঠ ও হাইওয়ে সড়ক। জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের তথ্য মতে, ২৬টি ইটভাটার মধ্যে বৈধ কাগজপত্র আছে ১১টির। তবে ১৫টি ভাটার বৈধ কাগজপত্র থাকলেও তা নবায়ন করা নেই অন্তত ছয়টির। এসব ভাটায় ছোট-বড় প্রায় দেড় শ ট্রাক রয়েছে। ট্রাকগুলোরও কোনো বৈধ কাগজপত্র নেই। অদক্ষ চালকদের কারণে ভাটার ট্রাকে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটে। চলতি বছর ভাটার ট্রাকে প্রাণ নিয়েছে পাঁচজনের, যার সর্বশেষ শিকার হয়েছেন বিকাশকর্মী আব্দুর রহমান।

গত ১৬ ফেব্রুয়ারি তিনি ঝিকরগাছা-চৌগাছা সড়কে মোল্লা ব্রিকসের ট্রাকের ধাক্কায় নিহত হন। তবে এসব ভাটা বছরের পর বছর দেদার চললেও প্রশাসনের কোনো হস্তক্ষেপ না থাকায় সাধারণ মানুষ ক্ষুব্ধ। উপজেলার নির্বাসখোলা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক জানান, নাভারণ ব্রিকসের পাশে তাঁর জমিতে এখন আর আগের মতো আবাদ হয় না।

এ বিষয়ে সম্প্রতি উপজেলার নির্বাসখোলা স্কুল অ্যান্ড কলেজের সম্মুখে অবস্থিত নাভারণ ব্রিকসের মালিক আব্দুল হাই মুঠোফোনে জানান, তাঁর নাভারণ ব্রিকসটি আগে শার্শা উপজেলায় ছিল। ২০১২ সালে এখানে ভাটা তৈরির পর আর লাইসেন্স করেননি তিনি।

জানতে চাইলে যশোর পরিবেশ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কামরুজ্জামান সরকার জানান, যেসব ইটভাটার বৈধ কাগজপত্র নেই তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্বে) ডা. কাজী নাজিব হাসান বলেন, ‘লাইসেন্স না থাকলে সব ইটভাটার কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হবে। আমি তো নতুন দায়িত্ব পেয়েছি। জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সঙ্গে পরামর্শ করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা