kalerkantho

শুক্রবার । ২০ চৈত্র ১৪২৬। ৩ এপ্রিল ২০২০। ৮ শাবান ১৪৪১

ঈশ্বরদী সরকারি কলেজ

তালা অধ্যক্ষের নির্দেশে ভেঙে ঢুকল শিক্ষার্থীরা

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অধ্যক্ষের নির্দেশে গতকাল সোমবার পাবনার ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের প্রধান ফটক ও বিভিন্ন বিভাগের ফটকের তালায় সুপার গ্লু মেরে ক্যাম্পাসসহ শ্রেণিকক্ষের পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ ঘটনায় বিক্ষোভে ফেটে পড়ে শিক্ষার্থীরা। পরে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা সব তালা ভেঙে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে।

শিক্ষার্থীরা জানায়, গতকাল সকাল ১০টার দিকে তারা কলেজে এসে প্রধান ফটক ও শ্রেণিকক্ষ তালাবন্দি দেখতে পায়। বেশ কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকে ক্লাস না করেই তারা কলেজ থেকে ফিরে যায়। এ ঘটনায় কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আব্দুর রহিম, স্টাফ কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক ও গণিতের বিভাগীয় প্রধান ম্যুরারি মোহন দাস, ইংরেজি বিভাগের প্রধান রবিউল ইসলাম, রসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রবিউল ইসলাম ও দর্শন বিভাগের প্রধান নজরুল ইসলাম যুক্ত আছেন বলে তারা জানতে পারে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে তাঁদের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা। ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি মো. আলাউদ্দিন বিপ্লব ও সাবেক ছাত্র রাকিবুল হাসান রনিসহ অন্যদের অভিযোগ, কলেজের সামনের ১ দশমিক ২৭ একর জমির মালিকানা নিয়ে আদালতে বিচারাধীন মামলায় কলেজের বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে কলেজের প্রধান ফটকে তালা মেরে দিয়েছেন অধ্যক্ষ ও চার শিক্ষক।

স্টাফ কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক ম্যুরারি মোহন দাস বলেন, ‘অধ্যক্ষের নির্দেশে কলেজের প্রধান ফটকে আমি তালা মেরেছি।’

ঈশ্বরদী থানার ওসি বাহাউদ্দিন ফারকী বলেন, ‘কলেজের গেটে কে বা কারা তালা মেরেছে তা আমরা জানি না।’ অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আব্দুর রহিম বলেন, আদালতের নির্দেশনায় কলেজের প্রধান ফটকে তালা মেরে বন্ধ করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা