kalerkantho

সোমবার । ১১ মাঘ ১৪২৭। ২৫ জানুয়ারি ২০২১। ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সাতক্ষীরায় স্কুলছাত্রীকে জোর করে বিয়ের চেষ্টা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি   

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাতক্ষীরার আশাশুনিতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে তুলে নিয়ে বিয়ের চেষ্টা করা হয়েছে। গত বুধবার রাতে উপজেলার পাইথালী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। বর্তমানে তাকে নিয়ে পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তা ছাড়া তার স্কুলে যাওয়াও বন্ধ রয়েছে।

ওই স্কুলছাত্রীর বাবা জানান, গত শুক্রবার সকালে উপজেলার বেউলা গ্রামের মৃত সিদ্দিক গাজীর ছেলে ফরহাদ গাজী তাঁর মেয়েকে মোবাইলে ডেকে নিয়ে বাড়ির বাইরে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে তুলে নিয়ে যান। পরে মধ্যরাতে তাঁর দুলাভাইয়ের বাড়ি থেকে স্থানীয় ইউপি সদস্য আলতাফ হোসেনের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

স্কুলছাত্রীর বাবা বলেন, পরে গত বুধবার সকালে মানবাধিকারকর্মী পরিচয়ে সদর উপজেলার ফিংড়ির শাহীন, বুধহাটা ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মমতাজ বেগমসহ তিনজন তাঁকে মোবাইল ফোনে জানান যে তাঁরা পুলিশ ও চেয়ারম্যানকে নিয়ে তাঁর মেয়েকে নিতে আসছেন। এ সময় তাঁদের হাতে তাকে তুলে না দিলে ফল ভালো হবে না বলে হুমকি দেওয়া হয়। পরে রাত ৮টার দিকে তাঁরা এসে তাঁর মেয়েকে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে ফরহাদের সঙ্গে ইসলামী শরিয়া মতে বিয়ে হয়েছে বলে দাবি করেন। তখন তাঁরা বলেন, হিন্দু মেয়েকে মুসলিম বানিয়ে বিয়ে করতে বয়স নাকি কোনো সমস্যা নয়।

আশাশুনি থানার ওসি আব্দুস সালাম বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা