kalerkantho

সোমবার । ১০ কার্তিক ১৪২৭। ২৬ অক্টোবর ২০২০। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

রাজবাড়ীতে দোকানিকে কুপিয়ে হত্যা

আরো তিন জেলায় তিন লাশ

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজবাড়ীতে দোকানিকে কুপিয়ে হত্যা

নিহত শফি শেখ

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে পূর্ববিরোধের জেরে এক যুবককে কুপিয়ে জখমের ১৮ দিন পর তার মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া লক্ষ্মীপুরে এক ব্যাংক কর্মকর্তা, ফরিদপুরে এক কলেজছাত্র এবং নেত্রকোনা সদরে এক শিক্ষকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বিস্তারিত নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে :

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) : মাত্র ১০০ টাকা পাওনার জেরে শফি শেখ নামের এক দোকানিকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১৮ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর গতকাল ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে শফির মৃত্যু হয়। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের আদু মাতবরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের পরিবার জানায়, আদু মাতবরপাড়া গ্রামের ইসলাম শেখের ছেলে শফি শেখ দৌলতদিয়া বাজারে কসমেটিকসের ব্যবসায়ী ছিলেন। একই গ্রামের মৃত চান্দা শেখের ছেলে ছালাম শেখ নিজ বাড়ির সামনে মনিহারির দোকানি। মাত্র ১০০ টাকা নিয়ে শফি শেখের সঙ্গে ছালাম শেখের বিরোধ চলছিল। গত ৯ জানুয়ারি ওই টাকা নিয়ে তাঁদের দুজনের মধ্যে বাগিবতণ্ডা হয়। রাত ৯টায় বাজারের দোকান বন্ধ করে মোটরসাইকেল চালিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন শফি। বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছতেই ছালাম শেখের নেতৃত্বে ১০-১২ জন শফিকে ঘিরে ধরে। তারা শফিকে রড দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। শফির চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা পলিয়ে যায়।

লক্ষ্মীপুর : আল-আমিন নামের এক ব্যাংক কর্মকর্তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গত রবিবার রাতে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার বাঞ্ছানগর এলাকায় তাঁর বাসা থেকে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। আল-আমিন চাঁদপুরের মতলব উপজেলার বাসিন্দা। দুই মাস আগে তিনি লক্ষ্মীপুর কৃষি ব্যাংকে সহকারী ম্যানেজার হিসেবে যোগদান করেন।

ফরিদপুর : ভাঙ্গায় এক কলেজছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল সকালে উপজেলার মানিকদহ ইউনিয়নের বিলভরা গ্রামে ওই ছাত্রের বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। ওই কলেজছাত্রের নাম ইমন ব্যাপারী। সে উপজেলার মানিকদহ ইউনিয়নের বিলভরা গ্রামের আক্কাছ বেপারীর ছেলে।

নেত্রকোনা : সদর উপজেলার সিংহের বাংলা ইউনিয়নের কোনাপাড়া গ্রামের জঙ্গল থেকে গতকাল স্কুল শিক্ষক উজ্জল চৌধুরীর (৪৫) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি জেলার মদন উপজেলার গোবিন্দশ্রী ইউনিয়নের বড়বাড়ি গ্রামের মৃত কেনু চৌধুরীর ছেলে। পুলিশ লাশের ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। পুলিশ এ ঘটনায় চারজনকে আটক করেছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা