kalerkantho

শনিবার । ৯ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪১

পাবনায় আসামিকে কুপিয়ে হত্যা

আলাদা স্থানে তিন লাশ

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

২৬ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পাবনার আতাইকুলায় হত্যা মামলার আসামিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ছাড়া রাজশাহীর বাঘায় পদ্মার চরে এক যুবক এবং কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে এক স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে :

পাবনা : আতাইকুলায় বাদীপক্ষের মারধরে হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাদ্দাম (৩০) নামের এক যুবক মারা গেছেন। গতকাল শনিবার দুপুরে সদর উপজেলার আতাইকুলা ইউনিয়নের মৌগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সাদ্দাম মৌগ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে। পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস জানান, প্রায় দুই বছর আগে মৌগ্রামের রেজাউল নামের এক ব্যক্তিকে সাদ্দাম ও তাঁর সহযোগীরা কুপিয়ে খুন করেন। এ ঘটনায় সাদ্দামকে প্রধান আসামি করে আতাইকুলা থানায় একটি হত্যা মামলা করা হয়। পুলিশ সাদ্দামকে গ্রেপ্তার করে। মামলায় জামিনে বের হয়ে আসেন সাদ্দাম। মুক্ত হওয়ার পর থেকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য তিনি বাদীপক্ষকে ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছিলেন।

বাঘা (রাজশাহী) : বাঘার পদ্মার চরের মোটরক্ষেত থেকে জাকির হোসেন মোল্লা (২১) নামের এক দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সকালে মোবাইল ফোনে খবর পেয়ে চরকালিদাসখালী থেকে এ লাশ উদ্ধার করা হয়। জাকির কালিদাসখালী গ্রামের আবদুল খালেক মোল্লার ছেলে। আবদুল খালেক জানান, জাকির শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ি থেকে কালিদাসখালী বাজারে ওষুধ আনতে যান। তারপর তিনি আর বাড়ি ফেরেননি। তাঁকে রাতে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও পাওয়া যায়নি।

কুড়িগ্রাম : ফুলবাড়ীতে শুক্রবার রাতে এক স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ওই ছাত্রের ঘর থেকেই তার লাশ উদ্ধার করা হয়। ওই ছাত্রের নাম সিদ্ধার্থ ভট্টাচার্য (১৩)। সে উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের পূর্ব ফুলমতি গ্রামের সমরেন্দ্র নাথ কেষ্ট ভট্টাচার্যের ছেলে এবং বালারহাট আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বারখাদা মধ্যপাড়ায় নিজ ঘর থেকে জামাল উদ্দিন (৬৫) নামের এক ব্যক্তির গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার দুপুরে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত জামাল উদ্দিন বারখাদা এলাকার বাসিন্দা। তিনি পেশায় একজন তাঁত শ্রমিক ছিলেন। কুষ্টিয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, স্থানীয়রা ঘরের মধ্যে গলাকাটা মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে। পারিবারিক কলহের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তদন্ত শেষে হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে বিস্তারিত জানানো যাবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা