kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২ রজব জমাদিউস সানি ১৪৪১

সুন্দরগঞ্জ

দুই পিআইও, বিল আটকা

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি   

১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে কর্মসৃজনে সুবিধাভোগীরা ৩৫ দিনেও কাজের বিল পায়নি। প্রতি সপ্তাহে শ্রমিকের ব্যাংক হিসাবে কাজের টাকা পরিশোধ করার কথা থাকলেও দুই পিআইও জটিলতার কারণে তা সম্ভব হয়নি। কোন পিআইও অফিসের দায়িত্ব পালন করবেন তার দাপ্তরিক আদেশ না পাওয়ায় বিল বন্ধ রাখা হয়েছে। ফলে শ্রমিকদের পাওনা টাকা পরিশোধ করা নিয়ে বিপাকে পড়েছেন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানরা।

প্রকল্প অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের কর্মসৃজন কর্মসূচির আওতায় সুবিধাভোগী রয়েছে পাঁচ হাজার ৬৩০ জন। ১৩৫টি প্রকল্পের বিপরীতে প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। কিন্তু দুই পিআইওর জটিলতায় দীর্ঘ ৩৫ দিন পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত কোনো শ্রমিক বিল পায়নি।

 

দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে বদলি করা হয় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নুরুন্নবী সরকারকে। এরপর তাঁর স্থানে মোশাররফ হোসেন নামের আরেক পিআইওকে পদায়ন করে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর। কিন্তু বদলির পর উচ্চ আদালতের একটি আদেশ নিয়ে অফিস দখল করেন নুরুন্নবী। পরে পদায়ন হওয়া পিআইও মোশাররফ আর অফিসে বসতে পারেনি। তিনি বর্তমানে ঢাকায় দপ্তরে অবস্থান করছে। ফলে কোন পিআইও অফিসের দায়িত্ব পালন করবে—তা নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়েছে। দাপ্তরিক আদেশ না পাওয়া পর্যন্ত সব প্রকল্পের বিল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক। এতে বিপাকে পড়েছে সুবিধাভোগীরা। গত ৩৫ দিনের কাজে শ্রমিকদের বিল পাওনা রয়েছে তিন কোটি ৯৪ লাখ ১০ হাজার টাকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা