kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ জানুয়ারি ২০২০। ১০ মাঘ ১৪২৬। ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি দিতে হয়রানি

যশোর অফিস   

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি দিতে হয়রানি

যশোরের চাঁচড়ায় শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা জানাতে আসা মানুষ এভাবে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকলেও গতকাল সকাল ৯টার আগে কাউকেই শ্রদ্ধা নিবেদন করতে দেওয়া হয়নি। ছবি : কালের কণ্ঠ

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে যশোরের চাঁচড়া বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছে যশোরের জেলা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ বিভিন্ন সংগঠন। তবে যশোরে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে শ্রদ্ধা জানাতে এসে পুলিশের আচরণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাংস্কৃতিক ও বিভিন্ন পেশাজীবী সংঠনের নেতাকর্মীরা।

দিবসটি পালন উপলক্ষে গতকাল শনিবার সকাল ৯টায় জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের শ্রদ্ধা জানানোর আগে ভোর থেকে এসে অপেক্ষারত অন্য কোনো সংগঠনকে বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধা নিবেদনে পুলিশের বাধা দেওয়ার অভিযোগ করেছেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটসহ কয়েকটি সংগঠনের নেতারা। এ কারণে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটসহ বেশ কয়েকটি সংগঠন প্রশাসনের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।

এ ব্যাপারে যশোর সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার আলম খান দুলু সাংবাদিকদের বলেন, ‘সকাল ৯টার আগে বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধা জানানো যাবে না এমন কোনো নির্দেশনার কথা জানা ছিল না। আমরা সাড়ে ৮টার দিকে ফুল দিতে গেলে পুলিশ ৯টার আগে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে দেয়নি। অনেক সংগঠন আরো আগে থেকেই দাঁড়িয়ে ছিল শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য। সাংস্কৃতিককর্মীরা এটাকে ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখছেন না। এ রকম একটি জাতীয় দিবসে প্রশাসনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা ঠিক নয়।’

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন যশোর শাখার সাধারণ সম্পাদক ডা. আবুল বাশার সাংবাদিকদের বলেন, ‘যশোর মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ, যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কসহ আমরা ৫০ থেকে ৬০ জন ডাক্তার সকাল সাড়ে ৮টার মধ্যে বধ্যভূমিতে যাই। কারণ মেডিক্যাল কলেজে পরীক্ষা চলছে এবং সকাল ৯টার মধ্যে আমাদের হাসপাতালে ইলেকট্রনিক ডিভাইসে উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হয়। কিন্তু পুলিশের বাধায় আমরা সময়মতো শ্রদ্ধা জানাতে ব্যর্থ হই। এ কারণে আমাদের অনেকে শ্রদ্ধা না জানিয়ে ফিরে যান। গণতান্ত্রিক দেশে এটা ঠিক নয়।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা