kalerkantho

বুধবার । ২২ জানুয়ারি ২০২০। ৮ মাঘ ১৪২৬। ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

সাহেব আলী শাবাশ

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালান সাহেব আলী মণ্ডল। রাজবাড়ীর পাংশা থেকে ৫০০ টাকা ভাড়ায় গোয়ালন্দ মোড়ের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। পথে আলাদীপুর সেতুতে তিন ছিনতাইকারী তাঁদের গতিরোধ করে। তারা যাত্রীকে নামিয়ে রাস্তার পাশে নিয়ে মারধর করার পাশাপাশি টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে ছিনতাইকারীরা তাঁর মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালায়। ওই সময় তিনি একজন ছিনতাইকারীকে জাপটে ধরেন। অন্য দুই ছিনতাইকারী ওই সময় পেছন থেকে তাঁকে বেধড়ক মারপিট করে। তবে তিনি জাপটে ধরা ছিনতাইকারীকে ছাড়েননি। এরই মধ্যে ঘটনাস্থলে চলে আসেন পুলিশ সদস্যরা।

এতে নিজে তো মুক্ত হনই, তাঁর কৌশলে ধরা পড়ে দুই ছিনতাইকারী। অবশ্য একজন পালিয়ে গেছে। রক্ষা পায় মোটরসাইকেলটি। পাশাপাশি ছিনতাইকারীদের মোটরসাইকেলও আটক করা হয়। সাহেব আলী কালুখালী উপজেলার বাস্তখোলা গ্রামের মৃত কহের আলী মণ্ডলের ছেলে। গত বুধবার রাত ৯টার দিকে রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে সদর উপজেলার রাজবাড়ী জুটমিলসংলগ্ন আলাদীপুর সেতু এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে।  এ ঘটনায় আটকরা হলো রাজবাড়ী সদর উপজেলার শাইলকাঠির সরোয়ার সরদারের ছেলে সোহরাব সরদার (২৮) ও মজলিসপুরের ফয়জউদ্দিন শেখের ছেলে মিজানুর রহমান (২৯)।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন মজুমদার বলেন, ‘সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ওহিদ আলী খানের ছেলে সুমন খাঁ (২৮) পলাতক। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা