kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

চাটমোহরে এখনো কেনা শুরু হয়নি ধান

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি   

১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরকারের খাদ্য বিভাগের আমন ধান সংগ্রহ অভিযান পাবনার চাটমোহর খাদ্যগুদামে এখনো শুরু হয়নি। কবে নাগাদ শুরু হবে এর সঠিক তথ্য দিতে পারছে না উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক বিভাগ।

লটারির মাধ্যমে কৃষকের তালিকা চূড়ান্ত না হওয়ায় ধান কেনা শুরু করতে পারছে না বলে জানিয়েছে গুদাম কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিগত বছরগুলোতে বেশির ভাগ কৃষকই খাদ্যগুদামে সরাসরি ধান দিতে পারেননি। এই সুযোগে গুদামের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে স্থানীয় ব্যবসায়ী ও ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা কৃষকের প্রাপ্য সুযোগ নিয়ে ধান সরবরাহ করে থাকেন। এই চিত্রটা চাটমোহর উপজেলার সব ইউনিয়নের কৃষকের ক্ষেত্রে ঘটেছে।

মূলগ্রাম ইউনিয়নের জগতলা গ্রামের কৃষক আশরাফ আলী বলেন, ‘প্রতিবছরই শুনে আসছি খাদ্যগুদামে ধান নেওয়া হয়। এ যাবৎকালে কখনোই আমি খাদ্যগুদামে ধান কিভাবে দিতে হয় জানলাম না। আমি একজন কৃষি কার্ডধারী স্বীকৃত কৃষক। শুনেছি লটারির মাধ্যমে কৃষক নির্বাচনের মাধ্যমে এবারও ধান সংগ্রহ করা হবে। তবে কবে নাগাদ হবে, আমরা হয়তো জানতেও পারব না।’

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম জানান, কৃষি কার্ডধারী কৃষকদের তালিকা তৈরি শেষ হয়েছে। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সবাই বগুড়ায় একটি প্রশিক্ষণে আছেন। তাঁরা চলে এলে লটারি করে ধান সংগ্রহ অভিযান শুরু করা হবে।

উপজেলা ভারপ্রাপ্ত খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, ‘কৃষকের ধান খাদ্যগুদামে নেওয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত। যথাসম্ভব দুই-তিন দিনের মধ্যেই লটারি হবে এবং কৃষক নির্ধারণ করার পরেই শুরু হবে ধান কেনা। কার্ডধারী প্রকৃত কৃষক ছাড়া কারো অন্য কোনোভাবে ধান সংগ্রহ করার অবকাশ নেই।’

চাটমোহর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার মোহাম্মদ রায়হান বলেন, ‘এরই মধ্যে ধান সংগ্রহ অভিযানের সব কার্যক্রম শেষ হয়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যান বগুড়া আছেন। উনি এলে মঙ্গলবার লটারির মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন করে ধান সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু করা হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা