kalerkantho

সোমবার । ২০ জানুয়ারি ২০২০। ৬ মাঘ ১৪২৬। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে আকস্মিক ধস

মজিদ শেখেরপাড়া গ্রামের আইয়ুব বয়াতির বাড়িঘরসহ পদ্মায় বিলীন হয়ে যায়

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি   

৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে আকস্মিক ধস

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ১ নম্বর ফেরিঘাটে নতুন নির্মিত পকেটপথের ১৫ মিটার অংশ গত শনিবার বিকেলে আকস্মিক ধসে মুহূর্তের মধ্যে পদ্মায় বিলীন হয়ে যায়। ছবিটি গতকাল দুপুরে তোলা। ছবি : গণেশ পাল

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় ভাঙনের রেশ কাটতে না কাটতে সেখানে ধসে পড়ছে নদীর পার। গত শনিবার বিকেলে ১ নম্বর ফেরিঘাটে নতুন নির্মিত পকেটপথের ১৫ মিটার অংশ পদ্মায় বিলীন হয়ে যায়। এর মধ্যে একটি বাড়িও রয়েছে।

বিআইডাব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট অফিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানী ঢাকার সড়ক যোগাযোগে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ নৌপথ। প্রতিদিন এ পথে কয়েক হাজার বিভিন্ন গাড়ি ফেরি পারাপার হয়। ওই নৌপথের দৌলতদিয়া প্রান্তের ফেরিঘাটে ছয়টি ঘাট রয়েছে। পদ্মায় আকস্মিক পানি ও স্রোতের তীব্রতা বেড়ে গত ৫ অক্টোবর সেখানে ভাঙনের কবলে পড়ে ১ ও ২ নম্বর ফেরিঘাট বিলীন হয়ে যায়। পরে ঘাটসংকট মোকাবেলায় বিলীন হওয়া ওই দুটি ঘাট আবার চালু করার উদ্যোগ নেয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। সেখানে লো-ওয়াটার লেভেলে ঘাট স্থাপনের জন্য ৪০০ ফুট দৈর্ঘ্য ও ২৭ ফুট প্রস্থের দুটি পকেটপথ নির্মাণকাজ শেষ করে বিআইডাব্লিউটিএ।

এরই মধ্যে ২ নম্বর ঘাটে পন্টুন স্থাপন করা হয়েছে। পাশাপাশি ১ নম্বর ঘাটে পন্টুন স্থাপনের প্রক্রিয়া চলছে। এমন পরিস্থিতিতে গত শনিবার বিকেলে দৌলতদিয়া ১ নম্বর ফেরিঘাটে নতুন নির্মিত ওই পকেটপথের ১৫ মিটার অংশ হঠাৎ ধসে মজিদ শেখেরপাড়া গ্রামের আইয়ুব বয়াতির বাড়িঘরসহ পদ্মায় বিলীন হয়ে যায়।

ভুক্তভোগী আইয়ুব বয়াতি বলেন, ‘নদীর পানি আগের চেয়ে অনেক কমে গেছে, তাই স্রোতও নেই বললেই চলে। তার পরও হঠাৎ নদীর পার ধসের শিকার হয়ে আমি সর্বহারা হয়ে পড়েছি। উপায় না পেয়ে পরিবারসহ এক প্রতিবেশীর বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছি।’

স্থানীয় দৌলতদিয়া ইউপি সদস্য মো. আশরাফুল ইসলাম জানিয়েছেন, দৌলতদিয়া ১ নম্বর ফেরিঘাট এলাকায় আকস্মিক নদীর পার ধসে পাশের মজিদ শেখেরপাড়া গ্রামের বাসিন্দাদের মনে আতঙ্ক বিরাজ করছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় জরুরি ভিত্তিতে ফেরিঘাটসহ এলাকার নদীর পার ধস রোধে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান তিনি।

বিআইডাব্লিউটিএর উপসহকারী প্রকৌশলী মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, দৌলতদিয়া ১ নম্বর ফেরিঘাট এলাকায় আকস্মিক নদীর পার ধসের বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা