kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

আ. লীগের কাউন্সিল ঘিরে বাণিজ্য

উজিরপুরের এ ঘটনা ফাঁস হওয়ায় ফেরত দেওয়া হয়েছে কয়েকজনের টাকা

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি   

২১ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বরিশালের উজিরপুরের শোলক ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলকে ঘিরে অর্থ বাণিজ্য ও ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে টাকার বিনিময়ে পদ বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। যে যত বেশি টাকা দিতে পারবে তার পদ পাওয়া তত সহজলভ্য হবে। এ ঘটনা ফাঁস হয়ে যাওয়ায় কয়েকজনের টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে। তবে অনেকে টাকা ফেরত না পেয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ইউনিয়নের স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ৩ নম্বর ওয়ার্ড ইউপি সদস্য সান্টু মোল্লা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী। শোলক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. আব্দুল হালিম সরদারকে ১০ হাজার টাকা দেন তিনি। সান্টু মোল্লা বলেন, ‘আমার টাকার পরিমাণ কম হওয়ায় গত ১১ নভেম্বর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অফিসে সবার সামনেই ১০ হাজার টাকা ফেরত দেন সভাপতি।’

শোলক ইউনিয়ন যুবলীগের সিনিয়র সহসভাপতি তানভীর আহম্মেদ ফারুক ১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তিনি ৩ নভেম্বর ইউনিয়ন সভাপতির কাছে দুই কিস্তিতে ১০ হাজার টাকা দেন। ফারুক জানান, তিনি এখনো টাকা ফেরত পাননি। তবে ৯টি ওয়ার্ডে সভাপতি-সম্পাদকসহ গুরুত্বপূর্ণ পদের তালিকা চূড়ান্ত করেছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতারা।

এ ব্যাপারে শোলক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. আব্দুল হালিম টাকা ফেরত দেওয়া ও নেওয়ার কথা অস্বীকার করে জানান, ২০ তারিখের মধ্যে ওয়ার্ড কমিটির পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম জামাল হোসেন জানান, বিষয়টি তাঁর জানা নেই। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ সিকদার বাচ্চু বলেন, ‘এ ব্যাপারে অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে সাংগঠনিকভাবে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা